November 13, 2018

জঙ্গীবাদ দমনে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে – সংস্কৃতিমন্ত্রী

মহিনুল ইসলাম সুজন,
নীলফামারী প্রতিনিধিঃ
সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর বলেছেন,‘জঙ্গিবাদ সৃষ্টিকারীদের চিহিৃত করে আইনের আওতায় আনতে হবে। এজন্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থার পাশাপাশি নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে। শনিবার বিকালে নীলফামারী জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে জেলা যুবলীগ আয়োজিত জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস বিরোধী যুব গণ-সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।তিনি বলেন,‘ বিএনপির নেতৃবৃন্দ বলছেন তাদেরকে সাথে নিয়ে জাতীয় ঐক্য না করলে বিপদ হবে। কি বিপদ হবে তারা আগে থেকে কিভাবে জানেন। তারা তো মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি জামায়াতকে সাথে নিয়ে রাজনীতি করছেন।

৭১এর পরাজিত ওই শক্তি মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে যে কায়দায় মানুষ হত্যা করেছে, নারীর ওপর বর্বরতা চালিয়েছে, আজ একই কায়দায় জঙ্গিরা মানুষ হত্যা করছে। সরকারকে বেকায়দায় ফেলার অপচেষ্টায় জঙ্গীবাদ সৃষ্টির পরিবেশ কারা তৈরী করছেন সেটাও খুঁজে দেখা দরকার।তিনি আরও বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার যখন উন্নয়নের স্টীমে আকাশে উড়ার পথে, ঠিক সে মূহুর্তে জঙ্গী হামলা করে উন্নয়ন ব্যাহত করা অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। সরকারের চলমান উন্নয়নের গতি থামাতে পাকিস্তানের দোষররা এ খেলায় মেতেছে।

‘জঙ্গি জামায়াত একই জাত, রুখবো এবার জঙ্গিবাদ’ শ্লোগানে জেলা যুবলীগের সভাপতি রমেন্দ্র নাথ বর্ধনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত যুব গণ-সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা দেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, কেন্দ্রিয় যুবলীগের কৃষি ও সমবায় সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান হোসেন, সহ সম্পাদক হাসিবুর রহমান, উপ-ক্রীড়া সম্পাদক হাবিবুর রহমান, সদস্য আব্দুল ওয়াহেদ, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিদ মাহমুদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক দীপক চক্রবর্তী, ডোমার উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস প্রতিরোধে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তিকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিটি পাড়া মহল্লা, গ্রাম ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলায় জঙ্গিবাদ বিরোধি কমিটি গঠনের জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।যুব গণ-সমাবেশে জেলার ছয় উপজেলার যুবলীগের নেতা কর্মীসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।সমাবেশ শেষে মন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি জঙ্গীবাদ বিরোধী শোভাযাত্রা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শেয়ে স্থানীয় চৌরঙ্গী মোড়ের মিলিত হয়ে জঙ্গীবাদ বিরোধী শপথবাক্য পাঠ করা হয়।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts