September 24, 2018

জঙ্গিবাদ প্রতিহত করতে জাতীয় ঐক্যের বিকল্প নাই – গোলাম মোস্তফা

রিপন হোসেন
ঢাকা থেকেঃ
জঙ্গিবাদ উগ্রবাদকে দলীয় নয়, জাতীয় সমস্যা উল্লেখ করে বাংলাদেশ ন্যাপ নেতৃবৃন্দ বলেছেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বা সেনাবাহিনী দিয়ে নয়, জঙ্গিবাদ প্রতিহত করতে জাতীয় ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই। দেশে এসব হত্যাকান্ড বন্ধ করতে হলে দলমত নির্বিশেষে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। তাহলেই এসব হত্যাকান্ড বন্ধ করা সম্ভব।

আজ শনিবার সকালে নয়াপল্টনস্থ যাদু মিয়া মিলনায়তনে জাতীয়নেতা মশিউর রহমান যাদু মিয়া‘র ৯২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ ঢাকা মহানগর আয়োজিত স্মরণসভায় নগর আহ্বায়ক সৈয়দ শাহজাহান সাজু‘র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, আলোচনায় অংশ গ্রহন করেন কল্যাণ পার্টি মহাসচিব এম.এম. আমিনুর রহমান, ন্যাপ সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ কামাল ভুইয়া, নগর সদস্য সচিব মোঃ শহীদুননবী ডাবলু, নগর সদস্য আবদুল্লাহ আল কাউছারী, জিল্লুর রহমান পলাশ, যুব নেতা আবদুল্লাহ আল-মাসুম, ছাত্রনেতা এইচ.এম. মেহেদী হাসান প্রমুখ।

ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া প্রগতিশীল ও গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মহানায়ক জাতীয় নেতা মশিউর রহমান যাদু মিয়ার অমর স্মৃতির প্রতি গভীরতম শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেছেন, আজকের সঙ্কটপূর্ণ রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে যাদু মিয়া যে জাতীয় ঐক্যের আদর্শ ধারন করতেন তার ভিত্তিতেই আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। দোষারোপের রাজনীতির অপসংস্কৃতি থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্টুরেন্টে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় বাংলাদেশের রাজনীতিতে ভূমিকম্পের সৃষ্টি হয়েছে। তিনি বলেন, দোষারোপের রাজনীতি দিয়ে জঙ্গিবাদ উগ্রবাদ দমন করা যাবে না। এতে তাদের লালন পালন হবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কিংবা সেনাবাহিনী দিয়েও জঙ্গিবাদ দমন সম্ভব নয়। জঙ্গিবাদ দমনে গণতান্ত্রিক পরিবেশ দরকার। জাতীয় ঐক্য দরকার।

তিনি আরো বলেন, আজকে আমাদের এখানে জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদ উত্থানের ফলে যে অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে, সেটা বাংলাদেশের জন্য একটি ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি বলে আমরা মনে করি। জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদ রুখতে সরকারের কাছে আমাদের আহ্বান অলিলম্বে দেশের নিবন্ধিত সকল রাজনৈতিক দলের সমন্বয়ে জাতীয় সংলাপের আয়োজন করুন।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ‘আমরা মনে করি, দেশে যদি গণতান্ত্রিক অধিকার না থাকে, সমান অধিকার না থাকে, একদলীয় শাসনের বলয়ে রাষ্ট্র পরিচালনা করা হয়, তাহলে সেখানে জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদের উত্থান অবধারিত।’

সভাপতির বক্তব্যে সৈয়দ শাহজাহান সাজু বলেছেন, মশিউর রহমান যাদু মিয়া যে সন্ত্রাসমুক্ত রাষ্ট্রের স্বপ্ন দেখতেন তা প্রতিষ্ঠা করতে ব্যর্থ হলে সামনে দিনগুলো আমাদের জন্য আরো ভয়াবহ হয়ে উঠতে পারে। আজকে দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য- আমাদের দেশে কিছু কিছু ঘটনা ঘটছে, যা আমরা প্রত্যাশা করিনি। কিছু মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে আমাদের দেশকে অস্থিতিশীল করার প্রচেষ্টায় মগ্ন আছে। এ ব্যাপারে আমাদের সকলকে সচেতন ও সক্রিয় থাকতে হবে, যাতে করে জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদের উত্থান বাংলাদেশে না হয়।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ১৬/০৭/২০১৬

Related posts