September 19, 2018

চুয়াডাঙ্গায় ঢাকাগামী ২বাসের মুখোমুখী সংঘর্ষঃ ২চালকসহ নিহত ৩

চুয়াডাঙ্গার জয়রামপুর কাঁঠালতলায় দর্শনা-ঢাকাগামী ২টি বাসের মুখোমুখী সংঘর্ষ

শামীম রেজা ,চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ  কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়ার কারনে চুয়াডাঙ্গার জয়রামপুর কাঁঠালতলায় দর্শনা-ঢাকাগামী ২টি বাসের মুখোমুখী সংঘর্ষে উভয় বাসের চালকসহ ৩ জন নিহত হয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছে উভয় বাসের ১৫ জন যাত্রী।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে।

সরেজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দর্শনাগামী পূর্বাশা পরিবহন ( ঢাকা মেট্রো ব-১৪-৮৮৯২) ও দর্শনা থেকে চুয়াডাঙ্গা হয়ে ঢাকা গামী দর্শনা ডিলাক্স পরিবহনের ( ঢাকা মেট্রো ব-১৪-৩৬৭৭)  বাস দুটির মধ্যে দামুড়হুদা উপজেলার জয়রামপুর কাঁঠালতলায় মুখোমূখী সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই দর্শনা ডিলাক্স পরিবহনের চালক ঢাকার কবিরপুর জরিনাবাজার এলাকার শাহজাহানের ছেলে দুলাল আহম্মেদ (৩৫)ও পূর্বাশা পরিবহনের চালক ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার নাটুপাড়ার জলিল ওরফে জরিপ মন্ডলের ছেলে মনিরুজ্জামান শান্তি (৪০) নিহত হয়।

চালকঃ দুলাল আহম্মেদ ও মনিরুজ্জামান শান্তি।ছবিঃ শামীম রেজা

এ সময় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রায় এক ঘন্টা চেষ্টা করে গাঢ়ীর মধ্যে আটকে থাকা লাশ দুটি উদ্ধার করে।

এ দূর্ঘটনায় গুরুতর আহত দর্শনা ডিলাক্স পরিবহনের যাত্রী মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর থানার বাগোয়ন গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে আরজ (২৬) চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মারা যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক রাজিবুল ইসলাম ওই যাত্রীর মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের ইমার্জেন্সি বিভাগের সিনিয়র নার্স আব্দুর রশিদ জানান, দূর্ঘটনায় ১০ জন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এরা হলো দামুড়হুদা উপজেলার হরিষচন্দ্রপুর গ্রামের শফিকুর রহমানের মেয়ে কোহেলী (২৫), চুয়াডাঙ্গার দর্শনা পৌর এলাকার ইসলামবাজারের আব্দুল খালেকের ছেলে পূর্বাশা পরিবহনের সুপাভাইজার সৌরভ (২২), দামুড়হুদা উপজেলার বুইচিতলা গ্রামের নজির আহম্মেদের ছেলে সুজন (৩০) ও তার স্ত্রী বেলী (২৬), মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর থানার বাগোয়ান গ্রামের ওমর আলীর স্ত্রী হালিমা (৪০), চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বড় বলদিয়া গ্রামের শাহিনুর (৩৫) ও তার মেয়ে দিশা (৮), তাসিন (২) এবং একই গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে শান্ত ( ১৬) ও  দামুড়হুদার শিবনগরের বেলী খাতুন (৩২)। এরা সকলেই চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ছাড়াও আহত মেহেরপুর জেলার মুজিননগর উপজেলার বায়োগান গ্রামের মাসুদুর রহমানের স্ত্রী জিম আক্তার (৩৫), তার মেয়ে মিম(১৩)  ও মাসুম (১১)  জয়রামপুরের কাঁঠালতলায় স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিয়ে নিজ বাড়ী ফিরেছেন।

দামুড়হুদা থানার অফিসার ইনচার্জ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, অতিরিক্ত কুয়াশা আর চালকদের অসাবধানতার কারনেই মূলত এ দূর্ঘটনা ঘটেছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts