November 19, 2018

চুরি যাওয়া পুরো অর্থ ফেরত দেবে ফিলিপাইন!

ঢাকাঃ  ২৩ বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের চুরি যাওয়া ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার তিন মাসের মধ্যে বাংলাদেশকে ফেরত দেওয়ার আশা করছে ফিলি​পাইন। ফিলিপাইনের অ্যান্টি মানি লন্ডারিং কাউন্সিলের (এএমএলসি) পক্ষ থেকে মঙ্গলবার এ আশা প্রকাশ করা হয়।

এএমসিএলের মহাপরিচালক জুলিয়া বাকাই আবাদ এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আশা করছি, তিন মাসের মধ্যে বাংলাদেশ সরকারকে অর্থ ফেরত দেওয়া সম্ভব হবে। কারণ, এই অর্থ ফেরত পাঠানোর আইনি প্রক্রিয়ায় কোনো বিরোধী পক্ষ থাকবে না বলে আশা আমাদের। পুরো প্রক্রিয়ায় যদি কোনো বিরোধী পক্ষ না থাকে, তাহলে আদালত বর্তমান তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে বাংলাদেশ সরকারকে অর্থ ফেরত দিতে এএমএলসিকে অনু​মতি দেবে।’

এএমসিএলের মহাপরিচালক বলেন, আগামী ২০ দিনের মধ্যে আদালত সংক্ষিপ্ত শুনানির দিন ধার্য করবেন ও প্রভিশনাল অ্যাসেটস প্রিজার্ভেশন অর্ডার জারির বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন। আদালত এ বিষয়ে এএমএলসিকে তথ্য-প্রমাণ উপস্থাপনের সুযোগ দেবেন এবং পরে রায় দ্রুত কার্যকর হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে রাখা বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ১০১ মিলিয়ন বা ১০ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার চুরি হয়। এর মধ্যে ফিলিপাইনে নিয়ে যাওয়া হয় ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার। শ্রীলঙ্কায় যায় বাকি দুই কোটি ডলার। শ্রীলঙ্কায় যাওয়া অর্থ ইতিমধ্যে উদ্ধার হয়েছে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/১৯ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts