December 19, 2018

চীনের আবিষ্কার রেললাইন-ড্রাইভার বিহীন প্রথম ট্রেন

aএশিয়া ::দেখতে অনেকটা বাসের মত হলেও, এটা আসলে ট্রেন। নতুন এই ট্রেন আবিষ্কার করল চীন।

নতুন এই ট্রেনের না আছে কোনও লাইন, না আছে ড্রাইভার। এটাই বিশ্বের প্রথম ট্রেন যা নাকি দৌড়বে ভার্চুয়াল ট্র্যাকে। কোনও ধাতব রেললাইন থাকবে না।

বিশ্বের বৃহত্তম জনসংখ্যার দেশে পরিবহণ ব্যবস্থা অনেক দিন ধরেই উন্নত। সফর কীভাবে আরও মসৃণ করা যায় তার জন্য গবেষণার শেষ নেই। বুলেট ট্রেনে দুনিয়াকে চমকে দেওয়া চীন এবার এনেছে নতুন ট্রেনটি। যে রেলগাড়ি ঝমঝম করে নিজস্ব লাইন দিয়ে ছুটবে না। রাস্তাতেই পথ খুঁজে নেবে। জাতীয় সড়ক দিয়ে চলা এই ট্রেন দৌড়বে ভারচুয়াল ট্র্যাকে। এর জন্য রাস্তাতে থাকছে এক বিশেষ সেন্সর। যার মাধ্যমে ট্রেন গন্তব্যের দিকে এগোবে। চীনের হুনান প্রদেশের ঝুঝৌ শহর এই ট্রেনের ট্রায়াল রানের সাক্ষী ছিল। গত শনিবার পরীক্ষামূলকভাবে চলে এই ভারচুয়াল ট্র্যাকের ট্রেন। প্রথম পরীক্ষায় সফল হওয়ার পর চীনা রেল কর্পোরেশন আগামী বছরের শুরুতেই এই ট্রেন পথে নামাতে চাইছে।

গত ২ জুন এই ট্রেন চালু করার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। মোট ৩০৭ জন যাত্রী বহন করা সম্ভব এই ট্রেনে। এই ট্রেনে লাগানো থাকবে সেন্সর। তাতেই এগিয়ে রুট চীনে এগিয়ে যাবে ট্রেন। লাগবে না কোনও রেল লাইন। ২০১৩ থেকে এই প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে চীন। ২০১৮ তেই এই ট্রেন চালানো সম্ভব হবে বলে জানা গিয়েছে।

পাঁচ বছর আগে থেকে এর প্রস্তুতি নেওয়া শুরু হয়। বিশেষ এই ট্রেনটির চাকা রাবারের, যা প্লাস্টিকে মোড়া। ট্রায়াল রানের জন্য ঝুঝৌ শহর বেছে নেওয়ার কারণ এখানকার ট্রাফিকের অবস্থা। চীনের আর পাঁচটা শহরের থেকে ঝুঝৌয়ের যানজটের সমস্যা খানিকটা কম। এই মেগা প্রকল্পের জন্য খরচ হয়েছে ৪০ থেকে ৭০ কোটি ইউয়ান।

চীনের রেল দপ্তরের আধিকারিকদের দাবি অন্তত ২৫ বছর ট্রেনটি দিব্যি চলবে। তবে বুলেট ট্রেনের মতো নয়, গতিতে এই ট্রেন নেহাতই শিশু। ঘণ্টায় ৭০ কিলোমিটার গতিতে দৌড়ায় ভারচুয়াল ট্র্যাকের ট্রেন। ইলেকট্রিকে চলা এই ট্রেন মিনিট দশেক চার্জ পেলে আরও ২৫ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে পারে

Related posts