September 22, 2018

চিত্রশিল্পী ভ্যানগগের সঙ্গে চেহারার হুবহু মিল?

fইউরোপ ::

কী ভেবেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার এক চিত্রশিল্পী ম্যাট বাটারওয়ার্থ যখন বিখ্যাত চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গগের মত সেজে তিনি মেলবোর্নের নামকরা আর্ট গ্যালারিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন?

শুধু যাওয়াই নয়, প্রদর্শনশালার বাইরে তিনি একটা বিজ্ঞপ্তিও ঝুলিয়েছিলেন:

”ভ্যান গগের মত হুবহু চেহারার সঙ্গে সেলফি তুলতে চান – বিনামূল্যে?”

অস্ট্রেলিয়ায় এ যাবতকালের সবচেয়ে বিশাল ভ্যান গগের ছবির প্রদর্শনী চলছিল জাতীয় প্রদর্শনশালায়। প্রথমে গুটি গুটি দুচারজন এসেছিল তার সঙ্গে ছবি তুলতে।

এরপরই শুরু হয়ে গেল ছবি তোলার জন্য ”হুড়োহুড়ি” ।

”আমার সঙ্গে সেলফি তোলার জন্য সে কী ঠেলাঠেলি। অজানা অচেনা মানুষ আমাকে ক্রমাগত জড়িয়ে ধরে ছবি তুলছে,” বলছিলেন মিঃ বাটারওয়ার্থ।

মাত্র ৯০ মিনিটে তিনি ১৪৭টি সেলফি ছবির জন্য পোজ দিয়েছেন। ”শিশু থেকে বৃদ্ধ – ছবি তুলতে তুলতে আমার ফোনের ব্যাটারি শেষ।”

তার মাথায় আইডিয়া আসে যখন লোকে তাকে বলে তাকে হুবহু উনিশ শতকী চিত্রশিল্পী ভ্যান গগের মত দেখতে। ৩৭ বছর বয়সে কার্যত আত্মহননের পথ বেছে নেবার আগে এই শিল্পী নিজের কান কেটে ফেলেছিলেন।

”আমার মনে হয়েছিল বিখ্যাত মানুষদের সঙ্গে সেলফি তোলাটা এখন ক্রেজ। যেহেতু আমার সঙ্গে ভ্যান গগের চেহারার মিল আছে আমি ভেবেছিলাম এই সোসাল মিডিয়া আর সেলফির যুগে মানুষ আইডিয়াটা লুফে নেবে।”

তবে চিত্রশিল্পী ভ্যান গগের সঙ্গে চেহারার মিল শুধু মিঃ বাটারওয়ার্থেরই নেই।

গত বছর ব্রিটেনে আয়োজিত ”আই এম ভিনসেন্ট” অর্থাৎ আমি ভিনসেন্ট ভ্যান গগ নামে এক প্রতিযোগিতায় নিজেদের ছবি পাঠিয়ে অংশ নিয়েছিলেন পৃথিবীর ৩৭টি দেশ থেকে ১২৫০ জন প্রতিযোগী।

Related posts