November 20, 2018

চার চেয়ারম্যান প্রার্থীর একই মঞ্চে হাতে হাত রেখে ভোট প্রার্থনা!

রুহুল আমিন,চলনবিল প্রতিনিধিঃ  তাড়াশ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচারণা এখন তুঙ্গে। মাইকিং, পোস্টারিং এবং নারী-পুরুষ নির্বিশেষে ছোট-বড় দলে বিভক্ত হয়ে প্রার্থীদের জন্য ভোট প্রার্থনায় কর্মীরা ব্যস্ত। হাট-বাজার, চা-স্টল, ভ্যান-রিকশায় সর্বত্রই ভোটের আলোচনা। ভোটাররাও সমর্থিত প্রার্থীর ভোট যাচাই করছে এবং পছন্দনীয় প্রার্থীর পক্ষে যুক্তি ছুড়ে দিচ্ছে।

আগামী ২৩ এপ্রিল তাড়াশ উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলার মোট ভোটার ১ লাখ ৩৭ হাজার ২শ ১৮। উপজেলার উত্তরের তালম ইউনিয়নে ১৬ হাজার ১শ ৩৩ জন ভোটারের মধ্যে ৮ হাজার ৩শ ২০ জন মহিলা ভোটার। এ ইউনিয়নে জাতীয় ২ দলের প্রার্থীরা হলো নৌকা প্রতীকে আব্বসউজ্জামান আব্বাস, ধানের শীষ প্রতীকে আবুল কাশেম, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জয়নাল আবেদীন। ৩ জনেরই ভোটের ভিত্তি মজবুত হওয়ায় ত্রি-মূখী লড়াই হবে এ ইউনিয়নে। পার্শ্ববর্তী বারুহাস ইউনিয়নের জাতীয় ২ দলেরই বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে।

এছাড়া আরও ২ জন সতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে। নৌকা প্রতীকে বর্তমান চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন, ধানের শীষ প্রতীকে হাসান ইকবাল শহীদ, বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক ও আসাদুজ্জামান। ৬ জন প্রার্থীর মধ্যে সতন্ত্র প্রার্থী আজিজুল ইসলাম সহ ৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে তীব্র প্রতিদ্বন্দিতা হবার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৮ হাজার ২শ ৩৪। মহিলা ভোটার ৯ হাজার ১শ ৯৫। সগুনা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সহ ৫ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী। নৌকা প্রতীকে আব্দুল বাকী ধানের শীষে, আবু সাঈদ এবং সতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল হালিম মন্ডলের মধ্যে প্রতিদ্বন্দিতার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

এখানে ভোটের প্রভাব পরে চর এলাকা ও বিল এলাকা। ভোটাররা শেষ-মেশ ২ ভাগেই ভাগ হয়ে যায়। কিন্তু এবার তা নাও হতে পারে। কারণ শক্ত ৩ প্রতিদ্বন্দির মধ্যে ২ জনেরই বাড়ি চর এলাকায়। এ ইউনিয়নে ভোটারের সংখ্যা ১৬ হাজার ৯শ ৬৯। মহিলা ভোটার ৮ হাজার ৫শ ৩২। মাগুড়া ইউনিয়নে কোন দলের বিদ্রোহী প্রার্থী না থাকলেও সতন্ত্র প্রার্থী সহ চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩ জন। নৌকা প্রতীকে আতিকুল ইসলাম বুলবুল, ধানের শীষে গোলাম আজম এবং সতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল হালিম শিপন মীর। এ ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৬ হাজার ৩শ ৩২ তন্মধ্যে মহিলা ভোটার ৮ হাজার ৩শ ৩৫। এখানে নৌকা ও ধানের শীষ প্রতীকের মাঝেই তীব্র লড়াই হবে। উপজেলার দক্ষিনের ইউনিয়ন নওগাঁ।

এখানে ভোটার সংখ্যা ১৮ হাজার ৯শ ৬৭। মহিলা ভোটার ৯ হাজার ৫শ ৫০। আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সহ চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩ জন। নৌকা প্রতীকে মোফাজ্জল হোসেন, ধানের শীষে আমিনুল ইসলাম গ্রহ এবং সতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমান মজনু। বিদ্রোহী প্রার্থী মজনুর জনপ্রিয়তার দরুণ ৩ জন প্রার্থীর মধ্যেই প্রচন্ড প্রতিদ্বন্দিতার আভাস পাওয়া যাচ্ছে। তাড়াশ সদর ইউনিয়নের প্রতি দৃষ্টি এখন সবার। জাতীয় ২ দলেরই একজন করে বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। প্রতিদিনই এ ইউনিয়নে ভোটের হিসেব-নিকেশ পাল্টে যাচ্ছে। নৌকা প্রতীকে বাবুল শেখ, ধানের শীষে বর্তমান চেয়ারম্যান আবু সাঈদ খন্দকার বিদ্রোহী প্রার্থী শহিদুল ইসলাম শহিদ ও রাজীব আহম্মেদ মাসুম।

তবে নৌকা প্রতীক-ধানের শীষ প্রতীক ও সতন্ত্র প্রার্থী শহিদের মধ্যে তীব্র লড়াই হবে। যেই উঠুক ব্যবধান হবে খুবই অল্প। ভোটার সংখ্যা ১৮ হাজার ৪শ ৯৫। মহিলা ভোটার ৯ হাজার ৩শ ৩৬। পার্শ্ববর্তী মাধাইনগর ইউনিয়নে জাতীয় ২ দলেরই বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। নৌকা প্রতীকে আবু হাসান মির্জা, ধানের শীষে বর্তমান চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান, বিদ্রোহী প্রার্থী জহুরুল ইসলাম মাস্টার ও আবুল বাশার। ধানের শীষ, নৌকা ও জহুরুল মাস্টারের মধ্যে জোর প্রতিদ্বন্দিতার আভাস পাওয়া যাচ্ছে। ভোটার সংখ্যা ১৫ হাজার ৭শ ৯৬ তন্মধ্যে মহিলা ভোটার ৮ হাজার ৭২। দেশীগ্রাম ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের ২ জন বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। নৌকা প্রতীকে আব্দুল কুদ্দুস, ধানের শীষে জামশেদ আলী, সতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ মাস্টার ও জ্যোতিষ চন্দ্র।

তবে প্রতিদ্বন্দিতা হবে ধানের শীষ ও নৌকার মাঝে। ভোটার সংখ্যা ১৫ হাজার ৩শ ৯ তন্মধ্যে মহিলা ৭ হাজার ৯শ ৭৬ জন।

উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ৭২টি ওয়ার্ডে মেম্বার প্রার্থী ৩০৭ জন। তন্মধ্যে ২ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হওয়ায় ভোটের জন্য ধর্না দিচ্ছে ৩০৫ জন প্রার্থী। মহিলা আসনে লড়াই করছে ৮৯ জন প্রার্থী। উপজেলার  ৭৬টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। ৪শ ৩৮টি কক্ষে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে প্রশাসন। এদিকে নির্বাচনী হাওয়া প্রতিনিয়তই পাল্টে যাচ্ছে। ভোটের দিন ভোটারদের ইচ্ছা-অনিচ্ছার উপর নির্ভর করবে চেয়ারম্যান, মেম্বার ও মহিলা আসনের প্রার্থীদের ভাগ্য।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/১৯ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts