September 22, 2018

চাঁদপুরে লঞ্চে ধর্ষণ চেষ্টাকালে ৪ যুবক অস্ত্রসহ আটক

154এ কে আজাদ,চাঁদপুরঃ  চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে লঞ্চ এক নারীকে মারধর ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে চার যুবককে অস্ত্রসহ যাত্রীরা আটক করে পুলিশে দিয়েছে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ।

রোববার রাতে ঢাকা থেকে মাদারীপুরগামী এমভি পারাবাত-১৪ লঞ্চে  এ ঘটনা ঘটে।
আটকৃতরা হলেন সুজন প্রকাশ রাব্বি (২৬) এর বাড়ি মাদারীপুর জেলার সমিতির হাট এললাকয়। অন্যদিকে সাব্বির (১৯), এমরান (২৩) ও রজ্জব (১৯) এর বাড়ি ঢাকা জেলার শ্যামপুর  পোস্তগোলা এলাকায় ।

এএসপি নুরজ্জামান বলেন, সোহেল নামের এক যুবক রোববার রাতে তার ‘বান্ধবীকে’ নিয়ে ওই লঞ্চে করে ঢাকা থেকে মাদারীপুরে যাচ্ছিলেন।

“রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টার দিকে চার যুবক এসে সোহেল ও তার বান্ধবীকে মারধর করে টাকা-পয়সা ও মোবাইল ফোন লুটে নেয়। এরপর তারা সোহলকে কেবিন থেকে বের করে দিয়ে তার বান্ধবীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে।”

এ সময় সোহেলের চিৎকারে লঞ্চ কর্মচারী ও যাত্রীরা ছুটে এসে তাদের উদ্ধার করে চার যুবককে আটকে রাখে। লঞ্চটি চাঁদপুর নৌ-টার্মিনালে যাত্রাবিরতীর কথা না থাকলে আকষ্মিক এঘটনার কারনে লঞ্চ  কর্তৃপক্ষ রাত ১টায় চাঁদপুর টার্মিনালে লঞ্নথামিয়ে চারজনকে তুলে দেওয়া হয় নৌ পুলিশের হাতে। আটক যুবকদের কাছে থেকে দেশে তৈরি একটি রিভলবার, দুটি গুলি ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। পরে তাদের চাঁদপুর সদর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয় বলে এএসপি জানান।

এ ব্যাপারে চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত মামুনুর রশিদ জানান, সোহেলের চিৎকারে লঞ্চ কর্মচারী ও যাত্রীরা ছুটে এসে তাদের উদ্ধার করে চার যুবককে আটকে রাখে। নৌ-পুলিশ আমাদের খবর দিলে আমরা তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসি। এব্যাপারে নৌ-পুলিশের এসআই মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে একটি  মামলা ও ভিকটিম তরনী ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আদালা আরেকটি মামলা দায়ের করেন।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি মো. মামুনুর রশীদ জানান, সোমবার ভোরে চাঁদপুর নৌ-পুলিশের এসআই মোশারেফ হোসেন চার যুবকের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা করে থানায় হস্তান্তর করেছেন। সোহেল ও তার ‘বান্ধবীকে’ও থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

সোহেল পুলিশকে বলেছেন, তারা দুজনই কেরানীগঞ্জের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন। তারা তাদের গ্রামের বাড়ি মাদারীপুর যাচ্ছিলেন।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts