September 25, 2018

চাঁদপুরে বোগদাদ-সিএনজি সংঘর্ষে : চালকসহ নিহত ২

1429366431

এ কে আজাদ, চাঁদপুর : মঙ্গলবার (১ আগস্ট) চাঁদপুর- কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবপুর এলাকায় যাত্রীবাহী বোগদাদ বাস ও সিএনজি চালিত স্কুটার সংঘর্ষের ঘটনায় চালকসহ নিহত হয়েছে ২জন। আহত অপর দু’জনের অবস্থা গুরতর।

নিহতরা হলেন, চাঁদপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ ইচলী গ্রামের মোস্তফা বেপারীর ছেলে স্কুটার চালক মহরম বেপারী (১৭) ও স্কুটার যাত্রী চাঁদপুর হাজীগঞ্জ উপজেলার রামরা গ্রামের বড় বাড়ি এলাকার মোঃ ইউসুফ মিজির ছেলে মুকবুল হোসেন (৩৩)।

গুরতর আহত অবস্থায় আরো দু’জন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আহতরা হলেন, ঢাকা ২৭/১ টিপু সুলতান রোড এলাকার মৃত আবু ইউসুফ চৌধুরীর স্ত্রী মাকসুদা বেগম (৫৫), হাবিবুল্লার ছেলে রবিন (৩৩)

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতদের পরিবার সূত্রে জানা যায়, তারা মঙ্গলবার লঞ্চযোগে ঢাকা থেকে দুপুরে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলায় যাওয়ার জন্য চাঁদপুর লঞ্চঘাটে এসে নামেন। সেখান থেকে তারা একটি সিএনজি স্কুটারে করে হাজীগঞ্জের উদ্দ্যেশে রওয়ানা দেন। স্কুটারটি দেবপুর বাজারের মসজিদের কাছাকাছি গেলে বিপরীত দিক থেকে বেপরোয়া গতিতে আসা কুমিল্লা থেকে চাঁদপুরগামী একটি বোগদাদ বাসের সাথে ধাক্কা লাগলে সিএনজি স্কুটারটি উল্টে পড়ে দুমড়ে মুছড়ে রাস্তার পাশে ছিটকে পড়ে। এতে সিএনজি স্কুটারের চালকসহ ৪ জনের হাত, পা ভেঙ্গে যায়, এবং মাথায় আঘাত লেগে প্রচন্ড রক্ত ক্ষরণ হয় ও শরীরের বিভিন্নস্থানে জখম হয়ে গুরতর আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা আহতদের ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্মরত চিকিৎসক আহত যাত্রী মুকবুল হোসেনকে মৃত ঘোষনা করেন, ঢাকায় নেয়ার পথে স্কুটার চালকের মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের কর্মরত চিকিৎসক ডাঃ নাজমুল আবেদীন ও ডাঃ মোহাম্মদ নুরে আলম জানায়, দুর্ঘটনায় যারা গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের শরীরের বিভিন্ন অংশে অনেক জখম হওয়ার কারনে অনেক রক্তক্ষরণ হয়েছে। এজন্য তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য তাৎক্ষণিক ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

দুঘর্টনার বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশকে অবহিত করলে থানার এস আই ত্রিনাথ সাহা সর্ঙ্গীয়ফোর্স নিয়ে লাশের সুরতহাল রির্পোট তৈরি করে লাশ থানায় নিয়ে যায়।

Related posts