September 23, 2018

গ্রাম প্রতিরক্ষা দলের হাতে লাঠি ও বাশি তুলে দিলেন পুলিশ সুপার


শামসুজ্জোহা পলাশ,
চুয়াডাঙ্গা থেকেঃ
হিন্দু-খ্রিষ্টান-বৌধ্য-মুসলিম ভাই ভাই, জাতী গত বিভেদ নাই। এই স্লেগানকে সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা খ্রিষ্ঠান মিশন পল্লীতে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের গ্রাম প্রতিরক্ষা দলের কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার বিকেল ৫টায় উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা মিশনপাড়া চার্জ অব বাংলাদেশ চত্তরে এক সমাবেশের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই দল গঠন করা হয়। এ সময় প্রতিরক্ষা দলের সদস্যদের হাতে লাঠি ও বাশি তুলে দেন প্রধান অতিথি চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার মো: রশীদুল হাসান।

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশ বিশেষ অতিথি ছিলেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ মো: সুফিউল্লাহ, মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই কবির হোসেন, এসআই জিয়াউর রহমান, এসআই মিজানুর রহমান, চার্জ অব বাংলাদেশ পুরোহিত রেভা মিঠু মল্লিক, মধু বিশ্বাস, প্রভুদান মন্ডল, সুধিন সরকার।
প্রধান অতিথির বক্তেব্যে পুলিশ সুপার বলেন, আমরা এখন একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছি, কিছু সুবিধাবাদী ধর্মের নামে বেছে বেছে মানুষ খুন করছে।

তারা মানুষ না, পশুর সমান। ইসলাম ধর্ম এ ধরনের হত্যাকান্ডের সমর্থন করেনা। এই কাপুরুষদের টার্গেট কিলিং ঠেকাতে পুলিশের পাশাপাশি আপনাদেরকের এগিয়ে আসতে হবে। সকলকে সম্মিলিত ভাবে কাজ করতে হবে। আপনাদের এলাকায় কোন বহিরাগত লোক এলে তার কাছে জিজ্ঞাসা করুন সঠিক উত্তর না পেলে তাকে আটক করে দ্রুত পুলিশকে খবর দিন। পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নিবে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ১৫ মে ২০১৬

Related posts