December 11, 2018

গাছ লাগাতে ব্যবহৃত হবে ড্রোন

ড্রোন

এতদিন গাছ কাটার জন্য নানা প্রযুক্তি আবিষ্কার হয়েছে। কিন্তু এবার হবে তার উল্টো। কারণ এবার থেকে ড্রোনের মাধ্যমে শুরু হতে চলেছে বৃক্ষরোপণ পদ্ধতি। বায়ো কার্বন ইঞ্জিনিয়ারিং নামের একটি সংস্থা শুরু করতে চলেছে এই পদ্ধতি। তারা জানিয়েছে, এই ড্রোনের মাধ্যমে বছরে প্রায় দশ লক্ষ গাছ রোপণ করা সম্ভব।

এক পরিসংখ্যানে তারা জানিয়েছে, প্রতি বছর প্রায় ২৬ লক্ষ গাছ পুড়ে যায় পৃথিবীতে। কিন্তু মাত্র ১৫ লক্ষ পুনরায় রোপণ করা হয়ে থাকে। কিন্তু এই পদ্ধতিতে আরও বেশি পরিমাণ গাছ লাগানো সম্ভবপর হবে বলে ঐ সংস্থা আশা প্রকাশ করেছে। কারণ হাতে করে সেই গর্তে বাঁধা ছকে গাছ লাগাতে যে সময় ও পরিশ্রম লাগে এক্ষেত্রে সেই দুটোই লঘু হবে বলে জানানো হয়েছে।

সংস্থার সিইও তথা নাসার প্রাক্তন ইঞ্জিনিয়ার লরেন ফ্লেটচার জানিয়েছেন যে, তাদের প্রধান লক্ষ্য হল পুরানো পদ্ধতিকে সরিয়ে নতুন এই প্রযুক্তিকে কাজে লাগানো। কিভাবে কাজ করবে এই নয়া বৃক্ষ রোপনকারী ড্রোন, তাও জানিয়েছেন লরেন। জানা গেছে, যে অঞ্চলে গাছগুলি রোপণ করা হবে, প্রথমে সেখান দিয়ে উড়ে যাবে ড্রোন৷ এক্ষেত্রে তার কাজ হবে অঞ্চলের মাটি পরীক্ষা করা ও মাটির গুণাগুণ বিচার করা। পরবর্তী সময়ে মাটির দু-তিন মিটার উঁচু থেকে ড্রোনের মাধ্যমেই ছড়িয়ে দেওয়া হবে বীজ।

বায়ো কার্বন ইঞ্জিনিয়ারিং সংস্থাটির হিসাব অনুযাীয় এই পদ্ধতিতে দিনে প্রায় ৩৫ হাজার গাছ লাগানো সম্ভবপর হবে। এছাড়া প্রথাগত ভাবে গাছ লাগানোর খরচ প্রায় ১৫ শতাংশ কমানো যাবে । প্রথমে পরীক্ষামূলক ভাবে আরব আমিরাতে ব্যবহার করা হবে এই পদ্ধতি।

Related posts