September 19, 2018

গাছে ঢিল দেওয়ায় পিটিয়ে হত্যা, কার্টুনে লাশ লুকানোর চেষ্টা!

রফিকুল ইসলাম রফিক,নারায়ণগঞ্জঃ নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে আম গাছে ঢিল দেওয়ায় দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী তানজিলাকে পিটিয়ে হত্যা করে পরে প্লাষ্টিকের বস্তায় ও কার্টুনে ভরে লুকানোর সময় এলাকাবাসী দেখে ধাওয়া দিয়ে ঘাতক ছাদুকে ধরে গণপিটুনী দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

জানাগেছে,গতকাল ১মে রবিবার দুপুরে উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের শ্রীনিবাসদী গ্রামের রবিউলের শিশু কন্যা তানজিলা(৮) পাশের বাড়ির ছাদু মিয়ার আম গাছে আম পাড়ার জন্য ঢিল ছোড়ে। এ ঘটনা দেখে ছাদু মিয়া শিশু তানজিলাকে ধরে মাথায় ও বুকে কিল ঘুষি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তানজিলার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনা তানজিলার ভাই তারেক ও খেলার সাথীরা দেখে ফেললে ঘাতক ছাদু তানজিলার মৃতদেহ একটি প্লাষ্টিকের বস্তায় ও পরে কাগজের কার্টুনে ভরে তানজিলার লাশ তার বসত ঘরে লুকিয়ে রেখে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকার লোকজন ছাদুকে ধরে গণপিটুনী দেয় এবং তার ঘর থেকে বস্তা ও বাক্সের ভিতর থেকে শিশু তানজিলার লাশ উদ্ধার করে।

পরে এলাকাবাসী ঘাতক ছাদু (৫০) কে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। ঘাতক ছাদু শ্রীনিবাসদী এলাকার আঃ রাজ্জাক এর ছেলে। সে একজন পাওয়ারলুম শ্রমিক বলে পুলিশ জানায়।

শিশু তানজিলার পিতা রবিউল জানান,তানজিলা শ্রীনিবাসদী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী।

আড়াইহাজার থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন জানান,ঘাতক ছাদু শিশু তানজিলাকে পিটিয়ে হত্যার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।

এ ব্যাপারে আড়াইহাজার থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শিশু তানজিলা হত্যার ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/১ মে ২০১৬

Related posts