September 25, 2018

গাইবান্ধায় স্বেচ্ছাশ্রমে দারিয়াপুর বন্দর পরিস্কার

zakiep
স্টাফ রিপোর্টার গাইবান্ধা ॥ গাইবান্ধার সদর উপজেলার দারিয়াপুর বন্দরকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে স্বেচ্ছাশ্রমে পরিচ্ছন্নতা অভিযান শুরু করলেন স্থানীয় দারিয়াপুরবাসী। শুক্রবার দুপুরে কোদাল, ঝাড়ু-বেলচা হাতে আবর্জনা পরিস্কার করতে শুরু করেন তারা। এসময় তাদের পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান দেখে অনেকেই যোগ দেন তাদের সাথে।
পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কাজে সহায়তা করেন, পল¬ী বিদ্যুৎ সমিতির সাবেক সচিব ডা. শাহজাহান, আব্দুর রশীদ মঞ্জু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী অর্জুন কুমার সাহা, দারিয়াপুর উদীচীর সভাপতি রেজাউন্নবী রেজা, মানবাধিকার সাংবাদিক নূর মো. খালেকুজ্জামান, শিশু কন্ঠ বিদ্যানিকেতনের অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক, স্বাস্থ্যকর্মী আব্দুল ওয়াদুদ, লক্ষণ চন্দ্র রায়, সুকুমার চন্দ্র, ফারুক মিয়াসহ আরও অনেকে।
বন্দর পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা উদ্দোক্তাকারী আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, পরিস্কার দারিয়াপু চাই আমরা সবাই। সেই লক্ষকে সামনে রেখে বিগত বছরের শেষ দিন আমরা পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে শুরু করেছি। আমরা চাই দারিয়াপুর বন্দর পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাক। তিনি আরো বলেন এর আগে বন্দরটিকে পরিস্কার রাখতে অনেক সরাম্বরে কাজ শুরু হয়েছিল কিন্তু কর্তৃপক্ষ্যের উদাসিনতার কারণে তা মুখ থুবরে পড়ে। ফলে বন্দরটি অপরিস্কার হতে থাকে। তাই আমরা দারিয়াপুরবাসি বন্দরটিকে পরিস্কার রাখতে আবার পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান শুরু করেছি। আশা করি সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি দেখবেন।
শিশু কন্ঠবিদ্যা নিকেতনের অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক জানান, দারিয়াপুর বন্দরটি অনেক জনবহুল। ময়লা আবর্জনা বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পড়ে থাকে কারণে ছেলে মেয়েদের স্কুলে যাতায়াতে অনেক অসুবিধা হয়। এছাড়া ময়লা আবর্জনার কারেণ রোগ জীবানু ছড়িয়ে পড়ছে। তিনি আরও বলেন যথেষ্ট পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মী থাকা সত্তেও সঠিক তদারকির অভাবে তারা সঠিক দায়িত্ব পালন করছে না। ফলে বন্দটি ময়লা আবর্জনায় ভর্তি হয়ে গেছে।

Related posts