September 26, 2018

খালেদার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা গণমাধ্যমের ষড়যন্ত্রঃ মেজর হাফিজ

88
ঢাকাঃ  বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলায় এবার গণমাধ্যমকে দুষলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীরবিক্রম।  তিনি বলেছেন, ‘বেগম জিয়া রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে কোনো কথা বলেননি। সরকারের কিছু গৃহপালিত গণমাধ্যম খালেদা জিয়াকে রাষ্ট্রদ্রোহী হিসাবে চিহ্নিত করার ষড়যন্ত্র করছে।’

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব কনফারেন্স লাউঞ্জে অল কমিনিউটি ফোরাম আয়োজিত ‘কাশ্মীরে জাতিসংঘের ভূমিকা ও দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তির বাধা সমূহ’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন।

হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘খুব শিগগির এই  অনির্বাচিত সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে। অন্যথায় বাংলাদেশও কাশ্মীর, ইরাক, আফগানিস্তান ও সিরিয়ায় পরিণত হবে।’

এসময় মেজর হাফিজ প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘দেশটাকে ধ্বংস করবেন না। আপনি  বঙ্গবন্ধুর কন্যা, তাই দেশকে বিকশিত হতে দিন। পছন্দটা জনগণের হাতে তুলে দিন। তাহলে হয়তো আপনি আবারও ক্ষমতায় আসতে পারেন।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আশরাফ উদ্দিন বকুলের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট আহমদ আযম খান, সহ-তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ২১ ডিসেম্বর ঢাকায় এক সমাবেশে বক্তব্য রাখার সময় খালেদা জিয়া বলেন, মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক আছে। তিনি বলেন, ‘আজকে বলা হয়, এত লাখ লোক শহীদ হয়েছে। এটা নিয়েও অনেক বিতর্ক আছে। এ নিয়ে অনেক বই-পুস্তকও লেখা হয়েছে।’

এরপর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে একজন আইনজীবী রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন করলে গত ২১ জানুয়ারি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মামলা করার অনুমতি দেয়।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts