September 23, 2018

খাগড়াছড়িতে অর্ধকোটি টাকা চাঁদার দাবিতে অপহৃত ঠিকাদার-ম্যানেজার

514
আল-মামুন,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়িতে অর্ধকোটি টাকা চাঁদার দাবিতে দু’জনকে অপহরণ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না দেওয়ায় অপহৃতদের উদ্ধারে তৎপরতা নেই প্রশাসনে। জেলার পানছড়ির তালতলা এলাকা থেকে সড়ক উন্নয়নকাজে নিয়োজিত ঠিকাদার সাইফুউদ্দিন শাহীন গাজী ও ম্যানেজার রহুল আমীনকে অপহরণ করেছে অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা।

মুক্তিপণ হিসেবে অপহরণকারীরা ৫০ লাখ টাকা দাবি করেছে খবর পাওয়া গেলে প্রশাসনের কাছে কোন অভিযোগ না থাকায় অহৃতদের উদ্ধার তৎপরতা থমকে আছে বলে জানা যায়। গত রবিবার বেলা ১১টার দিকে এ অপহরণের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন আল-আক্কাস ট্রেডিং করপোরেশন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক নাসির মল্লিক।

প্রশাসন অনেকটা দেরিতে হলেও ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করলেও কেউ অভিযোগ না করায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া যাচ্ছে না জানানো হয়। আল-আক্কাস ট্রেডিং করপোরেশন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক নাসির মল্লিক জানান, খাগড়াছড়ির পানছড়ি-গৌরাঙ্গপাড়া সড়কে এলজিইডির ১৪ কি.মি. সড়কে প্রায় ১ কোটি ৭০ লাখ টাকার কাজ চলছিল। কাজটি তদারকি করছিলেন ঠিকাদার সাইফুউদ্দিন শাহীন গাজী ও ম্যানেজার রহুল আমীন। কাজ চলাকালে একটি আ লিক রাজনৈতিক সংগঠনের নামে চাঁদা দাবি করে।

আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি বিষয়টি মীমাংসা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মাঝে কাজ বন্ধ করে দিলে ১৩ ফেব্রুয়ারি ১৩ হাজার টাকা দিয়ে একটি মোবাইল সেট কিনে দেওয়া হয়। পরদিন আবার দেখা করার কথা বলে তাদের তালতলা এলাকায় ডেকে নেয় উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা। ঠিকাদার সাইফুউদ্দিন শাহীন গাজী ও ম্যানেজার রুহুল আমীনের বহনকারী মোটরসাইকেলের চালক জানান, তিনি দুজনকে তালতলা এলাকায় পৌঁছে দেওয়ার পর চার অস্ত্রধারী যুবক দু’জনকে রেখে তাকে চলে যেতে বলে।

আল-আক্কাস ট্রেডিং করপোরেশন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক নাসির মল্লিক জানান, অপহরণের দু’দিন পর সন্ত্রাসীরা মোবাইল ফোনে তাদের মুক্তিপণ হিসেবে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে। গত কয়েক দিনে অপহরণকারী ও অপহৃতদের সাথে কয়েক দফা কথা হয়েছে। তবে সর্বশেষ দফায় দফায় মুক্তিপনের টাকার অংক বাড়ানো কমানো নিয়ে দফারফা চলে আসলেও এখনো অপহৃতরা উদ্ধার হয়নী।

খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মো. মজিদ আলী জানান, অপহৃতদের আত্মীয়স্বজনরা মামলা না করায় অপহরণকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া যাচ্ছে না।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts