September 19, 2018

কোরিয়ায় এক ইতিহাস হয়ে থাকবে বাংলাদেশীদের মহামিলন মেলা

বিদেশের মাটিতে জাতীয় পতাকা উত্তলন ও জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে শুরু হওয়া ইপিএস বাংলা সংগঠন তাদের গ্রীষ্মকালীন মিলনমেলা সম্পন্ন করেন। গত ২৯শে জুলাই সকালে কোরিয়ার ইতিহাসে অন্য কোন দেশের প্রবাসীরা এই প্রথম তাদের দেশের কোন বড় ধরনের মিলন মেলার আয়োজন করে।075E82B7-34CD-4A89-BFE7-E28662B45C83

যেখানে ১৭টি বাস যোগে ৭৫০ জন বাঙালী তরুন তরুনীরা একসাথে কুরিয়ার ঐতিহাসিক জংদোংজিন এবং মাংসাং সমুদ্র সী-বিচে একত্রিত হয়।

 

সেখানকার প্রবাসী বাংলাদেশীরা স্থানীয় কোরিয়ানদেরকে বাংলাদেশ কি, সৃষ্টি কোথায় এবং স্বাধীনতা কত সালে লাভ করে, আমাদের অর্জন কি, ইতিহাস সম্পর্কে ধারনা দওয়ারও চেষ্টা করেছেন।

ইপিএস বাংলার কমিউনিটির সদস্যরা বিদেশের মাটিতে এটাই প্রথম বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতের সুরে সাগর পাড় মুখরিত করলেন। যা একটি ইতিহাস হয়ে থাকবে কোরিয়ার মত দেশে ।  কোরিয়ার  মাটিতে এ মিলনমেলার আয়োজন করেন ঐ সংগঠনের উপ-কমিটির প্রধান ইয়াছিন রাসেল, উপ-প্রধান জিয়াউল হক, ফারুক আহমেদ, আল আমিন সহ সদস্য বিন্দ।

কোরিয়ার  অবস্থানরত নতুন বাঙালী প্রবাসীরা এ সকল ত্যাগী নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তাদের এ মহত উদ্যোগে অংশ গ্রহণকারী ভাই ও বোনদের তাদের উপস্থিতি ও স্বভাব সুলভ সুন্দর আচরণে অনুষ্ঠানের সুন্দর শোভা বৃদ্ধি পেয়েছে।

ধন্যবাদ জানিয়েছেন অনুষ্ঠানে সহযোগিতাকারী প্রতিষ্ঠান জি,এম,ই রেমিটেন্স ও এস,এস,ফুড কে। পানি ও ঠান্ডা পানি সরবরাহ কারী খান মোবাইলের প্রোঃ হিরন ভাইকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন তারা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ায় সংগঠনের পক্ষ থেকে কোরিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের নব নিযুক্ত প্রথম সচিব (শ্রম) মুকিমা বেগমকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।

উপ কমিটি আরও বলেন , সকলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ আমাদের অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছে আগামী বছর আরও বড় পরিসরে মিলনমেলা আয়োজন করার। আগামীতে আবার দেখা হবে বড় পরিসরে।

Related posts