November 16, 2018

কিশোরীর বিয়েতে হাজির ম্যাজিস্ট্রেট, অতঃপর……

এস এম সালাহ উদ্দিন, কুমিল্লা ব্যুরো।।
কুমিল্লা সদর দক্ষিণের দুবাই প্রবাসী এক যুবকের সাথে সদর দক্ষিণের বেলঘর উত্তর ইউনিয়নের গৈয়ারভাঙ্গা গ্রামের বাহরাইন প্রবাসী মো: মোস্তফার কন্যা স্থানীয় গৈয়ারভাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী হালিমা কামাল মনি’র(১২) বিয়ের আয়োজন করার অপরাধে কনের পিতা মো: মোস্তফাকে ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

জানা যায়, আজ শুক্রবার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। সে অনুযায়ী কনের পরিবার সবরকম প্রস্তুতিও নেয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্যাট রুপালী মন্ডল বিয়ে বাড়ীতে হাজির হয়ে বাল্য বিয়ের সকল আয়োজন বন্ধ করে দেন এবং  ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন ১৯২৯ এর ৬ ধারা অনুযায়ী বাল্য বিয়ের আয়োজন করায় কনের পিতা মো: মোস্তফাকে ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

এসময় তিনি বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পাওয়া কনে মনির লেখাপড়া নিশ্চিত করতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও গৈয়ারভাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে মৌখিক নির্দেশ দেন। বাল্য বিবাহ বন্ধের এ অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ও ভুশ্চি বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ অমর চন্দ্র দাস।

Related posts