November 18, 2018

কাশ্মিরে সহিংসতার আশঙ্কায় কারফিউ জারি

দিল্লিঃ  কাশ্মিরে নতুন করে সহিংসতার আশঙ্কায় আজ জুমা নামাজের আগেই গোটা রাজ্যজুড়ে কারফিউ জারি করা হয়েছে। রাজ্যের ১০ টি জেলাতেই কঠোরভাবে কারফিউ কার্যকর করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার জুমা নামাজে প্রচুর সংখ্যক মানুষের সমাগমের কথা রেখে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ওই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

গত শুক্রবার রাতে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে হিজবুল মুজাহিদীনের স্থানীয় কমান্ডার বুরহান ওয়ানি নিহত হওয়ার পর থেকে বিভিন্ন সহিংসতায় রাজ্যটিতে ৩৮ জন নিহত এবং ৩১০০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছে।

পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে জম্মু-কাশ্মিরের ১০ টি জেলাতেই কারফিউ জারি করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, জুমা নামাজে প্রচুর সংখ্যক মানুষ উপস্থিত হবে এবং সেসময় কিছু স্বার্থান্বেষী সহিংসতায় উসকানি দেয়ার আশঙ্কাতে কারফিউ জারি করা হয়েছে।

ওই কর্মকর্তা বলেন, উপত্যাকায় উপত্যকায় প্রচুর সংখ্যক পুলিশ এবং আধা-সামরিক বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছে যাতে কঠোরভাবে নিষেধাজ্ঞা পালন করা হয়। গুজব ছড়ানো বন্ধ করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে মোবাইল টেলিফোন পরিষেবা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কেবলমাত্র বিএসএনএল পোস্টপেইড সংযোগ কাজ করছে। যদিও ওই কর্মকর্তা বিএসএনএল পোস্টপেইড সংযোগ কাজ করছে কেন তার কোনো কারণ জানালেও মনে করা হচ্ছে তুলনামূলকভাবে খুব কম সংখ্যকই এ ধরনের পরিষেবা চালু রাখা হয়েছে। বেশিরভাগ সরকারি এবং পুলিশ কর্মকর্তারা ওই পরিষেবা ব্যবহার করে থাকেন।

কাশ্মির উপত্যাকায় ৭ দিন ধরে মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ থাকার পাশাপাশি ট্রেনও চলছে না। গত শনিবার থেকে এখানে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৩৮ জন নিহত এবং ১৫০০ নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানসহ ৩১৪০ জন আহত হয়েছে।

Related posts