September 25, 2018

কারাগারে থাকতে চায় জগন্নাথ শিক্ষার্থীরা

ঢাকাঃ গত ৩০ জুলাই ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের বন্দিদের কেরানীগঞ্জে নতুন কারাগারে স্থানান্তর করা হয়েছে। এই স্থলে সরকার জাদুঘর, পার্ক, শপিংমল ও বিনোদন কেন্দ্র করার পরিকল্পনা করছে সরকার।

তবে রোববার (৭ আগস্ট) কারাগারের জায়গাটুকুতে আবাসনের ব্যবস্থা করার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে পার্শ্ববর্তী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীরা। জায়গাটিতে তাদের জন্য হল নির্মাণের দাবি জানিয়েছে তারা। বিক্ষোভ মিছিল শেষে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অবস্থান ধর্মঘটও করে।

সকালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাস্কর্য চত্বর থেকে শুরু হয়ে কলা ভবন ঘুরে বিজ্ঞান অনুষদ হয়ে কয়েক দফা ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। এরপর প্রধান ফটকের সামনে এসে মিলিত হয়ে ২ ঘণ্টা অবস্থান করে এবং ভাস্কর্য চত্বরে সমাবেশ করে।

সমাবেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘আজ ১১ বছর অতিবাহিত হলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এখন পর্যন্ত একটি হলের ব্যবস্থা করতে পারেনি। শিক্ষার্থীরা মেসে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। সম্প্রতি জঙ্গি দমনের নামে মেসে মেসে চলছে পুলিশি অভিযান। যার জন্য নিরপরাধ শিক্ষার্থীরাও হয়রানির শিকার হচ্ছে। তাই অবিলম্বে শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন হল নির্মাণ করে আবাসন সংকট নিরসনের ব্যবস্থা করতে হবে।’

শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, ‘সম্প্রতি কেন্দ্রীয় কারাগার কেরানীগঞ্জে স্থানান্তর করা হয়েছে। খালি হওয়া কারাগারের জায়গা বিশ্বদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত করে নতুন হল নির্মাণে বরাদ্দ দিতে হবে এবং জাতীয় চার নেতার নামে হলের নাম রাখতে হবে।’

শিক্ষার্থীরা নতুন হলের দাবিতে তাদের ধারাবাহিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে আগামীকাল সোমবার থেকে পরবর্তী বিবৃতি না দেয়া পর্যন্ত সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সকল ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ডাক দিয়েছে।

Related posts