November 16, 2018

কান্দাহারের বিমান ছিনতাইয়ের পেছনে ছিল আইএসআই: অজিত দোভাল

shoel১৯৯৯ ইন্ডিয়ান এয়ালাইনসের যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ ছিনতাইয়ের পেছনে পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের সক্রিয় সমর্থন ছিল। ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল এ দাবি করেছেন। মাইরা ম্যাকডোনাল্ডের ‘ডিফিট ইজ অ্যান অরফান: হাউ পাকিস্তান লস্ট দ্য গ্রেট সাউথ এশিয়ান ওয়ার’ নামের একটি বইয়ে এ তথ্য প্রকাশিত হয়। আজ ভারতের ইংরেজি দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইনের প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়।

১৮০ জন যাত্রী ও ক্রু নিয়ে ১৯৯৯ সালের ২৪ ডিসেম্বর কাঠমান্ডু-দিল্লিগামী আইসি-৮১৪ উড়োজাহাজটি ছিনতাই করে পাঁচ তালেবান জঙ্গি। তারা উড়োজাহাজের সব যাত্রীকে জিম্মি করে। ভারতের ইতিহাসে এটিই সবচেয়ে বড় ছিনতাই ও জিম্মির ঘটনা।
বইটিতে দোভাল বলেন, যদি তালেবানদের প্রতি আইএসআইয়ের সমর্থন না থাকত, তবে ভারত ওই সমস্যা সমাধান করতে পারত। উড়োজাহাজ ছিনতাইয়ের পর তালেবান জঙ্গিরা কয়েকটি জায়গায় উড়োজাহাজটিকে নিয়ে ঘোরার পরে শেষ পর্যন্তটি এটিকে আফগানিস্তানের কান্দাহারে নিয়ে যায়। জঙ্গিরা এই জিম্মি করে ভারতের হাতে আটক জঙ্গি নেতা মাওলানা মাসুদ আজহার, আহমেদ ওমর সাঈদ শেখ ও মুশতাক জারগারকে ছাড়িয়ে নেয়। বিমান ছিনতাইয়ের ঘটনার সময় অজিত দোভাল মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকায় ছিলেন। তিনি বলেন, কান্দাহারে টারমাকে অস্ত্র হাতে বেশ কয়েকজন তালেবান জঙ্গি ছিল। এ সময় সেখানে আইএসআইয়ের কয়েকজন কর্মকর্তা ছিলেন। তাঁদের মধ্যে একজন ছিলেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল, আরেকজন মেজর। এ পরিস্থিতি দেখার পর ভারতীয় নিরাপত্তা কর্মকর্তরা নিশ্চিত হন, পুরো ঘটনায় আইএসআইয়ের সায় ছিল। দোভাল বইয়ে বলেছেন, ‘আমাদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ গোয়েন্দা তথ্য ছিল। আইএসআইয়ের সমর্থন জঙ্গিদের পেছনে না থাকলে আমরা বিমানটি মুক্ত করতে পারতাম।’

Related posts