November 18, 2018

কান্তজীর মন্দিরে হামলার রহস্য; নেপথ্যে যা!

দিনাজপুরে রাসমেলার যাত্রা প্যান্ডেলে বোমা বিস্ফোরণে

দিনাজপুরে রাসমেলার যাত্রা প্যান্ডেলে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আটক ৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকেই গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। কাহারোল থানার ওসিকে ক্লোজড করে নতুন ওসি নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

দিনাজপুরের কাহারোল থানার এসআই তাজুল ইসলাম জানান, কাহারোল উপজেলার ঐতিহাসিক কান্তজিউ মন্দিরের রাসমেলা উপলক্ষে আয়োজিত মাসব্যাপী মেলার যাত্রা প্যান্ডেলে গত ৪ ডিসেম্বর মধ্যরাতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় আটক ৬ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকাল সকালে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সূত্রটি জানায়, ঘটনার সঙ্গে তাদের সম্পৃক্ততার কোনো কারণ না থাকায় ওই ৬ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়। গত দুদিনে পুলিশ বোমা বিস্ফোরণ ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। পুলিশের সূত্রটি জানায়, এটি কোনো নাশকতামূলক ঘটনা নয়। মেলার ইজারা কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলা হিসেবে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

পুলিশের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, এ বছর ২৭ লাখ ৭১ হাজার টাকা দিয়ে কান্তজিউ মেলার হারেস উদ্দীন ইজারা গ্রহণ করেন। গত বছর সেন্টু ও রেজাউল যৌথভাবে ১৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকায় ইজারা নেন। এ বছর দ্বিগুণ টাকায় হারেস উদ্দীন মেলার ইজারা নেওয়ায় শুরু থেকে প্রতিপক্ষ সেন্টু ও রেজাউল ক্ষিপ্ত ছিল। বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার পর থেকে সেন্টু ও রেজাউলকে পাওয়া যাচ্ছে না। তারা আত্মগোপন করেছে বলে পুলিশের একটি সূত্র জানায়। বিস্ফোরণ ঘটনায় ইজারাদার হারেস উদ্দীনের দায়েরকৃত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে কাহারোল থানার এসআই তাজুলকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

দিনাজপুরের পুলিশ সুপার মো. রুহুল আমিন জানান, রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি মো. হুমায়ুন কবিরের নির্দেশে দায়িত্ব ও কর্তব্যে অবহেলার অভিযোগে কাহারোল থানার ওসি আব্দুল মজিদকে গত শনিবার সন্ধ্যায় প্রত্যাহার করা হয়েছে। গতকাল রোববার বিকালে নীলফামারী জেলার পুলিশ পরিদর্শক মো. মনসুর আলীকে কাহারোল থানার ওসি নিয়োগ দেওয়া হয়। মনসুর আলী গতকাল বিকালে দিনাজপুরের পুলিশ সুপার কার্যালয়ে যোগদান করেছেন। আজ সোমবার তিনি কাহারোলের ওসি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন।

এদিকে কান্তজিউ রাসমেলায় বোমা বিস্ফোরণে আহত ৬ জন দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। সার্জারি ওয়ার্ডের চিকিৎসক সহকারী অধ্যাপক সৈয়দ নাদের হোসেন জানান, চিকিৎসাধীন ৬ জনের মধ্যে ৩ জন উমাকান্ত রায়, আব্দুল জব্বার ও সাধন রায়ের শরীরে স্পিন্টার রয়েছে। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।আস

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts