November 19, 2018

কাঁচপুরে মেঘলা হত্যাঃ আদালতে একজনের স্বীকারোক্তি

রফিকুল ইসলাম রফিক, নারায়ণগঞ্জঃ  সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর সোনাপুর এলাকায় গত রোববার সকালে ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে বখাটের ছুরিকাঘাতে নিহত গার্মেন্ট শ্রমিক মেঘলা (১৪) হত্যাকান্ডের ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। গতকাল সোমবার মেঘলার মা জান্নাতুল বেগম বাদী হয়ে ৪/৫জন অজ্ঞাতনামা আসামী করে হত্যা মামলাটি দায়ের করেন। এদিকে মেঘলা হত্যাকান্ডের দিন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটককৃত ৩ জনের মধ্যে আমিনুল ইসলাম কাকন নামে একজন গত সোমবার বিকেলে স্বীকারেক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আশেক ইমামের আদালতে ১৬৪ ধারায় তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী রেকর্ড করা হয়।

জানা গেছে, গত রোববার ভোরে উপজেলার কাঁচপুর সোনাপুর এলাকার আলী হোসেনের বাড়ির ভাড়াটিয়া রাশেদ মিয়ার কিশোরী মেয়ে মেঘলা তার কর্মস্থল নওয়াব আলী টেক্সটাইল মিলে যাচ্ছিল। এ সময় কাঁচপুর সোনাপুরস্থিত হাজী আব্দুল আজিজের বাড়ির চতুর্থ তলায় একটি ফ্লাটের ভাড়াটিয়া ৪ বখাটে তাকে জোরপূর্বক বাসায় নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। কিন্তু ধর্ষণ করতে ব্যর্থ হয়ে তারা মেঘলার গলা ও শরীরের বিভিন্ন অংশে ছুরিকাঘাত করে।

পরে মেঘলার আত্মীয়স্বজনরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ ওই দিনই হাজী আব্দুল আজিজের বাড়ির চতুর্থ তলায় উক্ত ফ্লাটের ভাড়াটিয়া আমিনুল ইসলাম কাকন, শরীফুল ইসলাম ও তুহিন নামে তিন বখাটেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। আটককৃতদের মধ্যে আমিনুল ইসলাম কাকন গতকাল স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয়।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/১০ মে ২০১৬

Related posts