November 20, 2018

কর্মক্ষেত্র ও সংসারের ভারসাম্য বজায় রাখার কৌশল

এক সময় কর্মজীবী বলতে সংসারের পুরুষ মানুষটিকেই বোঝানো হত। কিন্তু এখন স্বামীর পাশাপাশি স্ত্রীরাও এগিয়ে এসেছে কর্মক্ষেত্রে। তাই আগে যেভাবে বাবারা কর্মক্ষেত্র ও মা’রা সংসার সামলাতেন তার নিয়ম বদলে যাচ্ছে। স্বামী স্ত্রী যদি একে অপরকে সহায়তা করেন তবে ঠিকভাবে সবকিছু সামলে নিয়ে খুব সহজেই চালিয়ে নিতে পারেন সংসার ও কর্মক্ষেত্র।
কর্মক্ষেত্র ও সংসার এই দুই কিভাবে সামলে নিয়ে এগিয়ে যাওয়া যাবে তাই নিয়েই আমাদের এই আয়োজন।
১. সংসার ও কাজ এই দুইটি যে কোনো কর্মজীবী মানুষের কাছে একই রকম গুরুত্ব বহন করে, তবে কখনো কখনো সংসার ও কাজের মাঝে একটিকে বেশি অগ্রাধিকার দিতে হতে পারে। সেক্ষেত্রে কোনটি বেশি দরকার তা ঠিক করে নিন। যেমন মনে করুণ আপনার সন্তান অসুস্থ সেক্ষেত্রে আপনার তাকেই প্রাধান্য দিতে হবে। আবার কখনো কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজ করার দরকার হয়ে পড়তে পারে, সে সময় গুরুত্ব পাবে কর্মক্ষেত্র। কাজের সময় বাসার সমস্যা ও বাসায় সময় কাটানোর সময় কাজ নিয়ে পড়বেন না। কর্মক্ষেত্রে বা বাসার কাজে কোনো সাহায্যের দরকার পড়লে অবশ্যই সাহায্য নিন। এতে লজ্জার কিছু নেই। সংসারের ক্ষেত্রে স্বামী বা স্ত্রীকে বলুন আপনার সাহায্যে এগিয়ে আসতে, সন্তান ও বন্ধুবান্ধবদেরও সহযোগিতা নিতে পারেন। যদি সম্ভব হয় তবে বাসার কাজে সাহায্য করার জন্য কাজের মানুষ রাখতে পারেন। অফিসের ক্ষেত্রে সমস্যা হলে আপনার আপনার অন্যান্য কলিগদের সহায়তাও চাইতে পারেন।
২. দৈনন্দিন কাজের একটি রুটিন করে ফেলুন, এতে দ্রুত কাজের নিষ্পত্তি করতে পারবেন। সম্ভব হলে সপ্তাহের বাজার একবারে করুন। সন্তানের পড়াশোনার দায়িত্ব ও স্কুলে যাতায়াতের দায়িত্ব দুইজনে মিলেমিশে পালন করুন। মাঝে মাঝে দুই একদিনের ছুটি পেলে দেশের মাঝেই কোথাও ঘুরে আসতে পারেন। এতে কাজের অবসাদ দূর হয়ে নতুন কাজের উদ্যম তৈরি হবে।
৩. কর্মক্ষেত্রে কলিগদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন। কর্মক্ষেত্রে আপনার আচরণ ভালো থাকলে বিপদের সময় তাদের সহায়তা পেতে বেশি বেগ পেতে হবে না। যে কোনো কাজ সময়ের মধ্যেই শেষ করার চেষ্টা করবেন। অযথা ঝুলিয়ে রাখবেন না। এতে পড়ে গিয়ে কাজের চাপ বেড়ে গিয়ে আপনার কাজের পাশাপাশি সংসারের ভারসাম্যও নষ্ট করে দিতে পারে।
আমাদের দেশে স্বামী-স্ত্রী দুজনের কাজ করা এখন আর বিলাসিতার বিষয় নয় বরং প্রয়োজন। একটি সংসারকে সুন্দরমতো চালিয়ে নেবার জন্য পুরুষ সদস্যটির সঙ্গে এগিয়ে আসতে হচ্ছে নারীটিকেও। যেহেতু কাজ করতেই হবে তাই দুইজনে মিলেমিশে সংসারের দায়িত্বগুলো পালন করলে ও কর্মক্ষেত্রে সুসম্পর্ক বজায় রেখে কাজ করলে সংসার ও কর্মক্ষেত্র এক সঙ্গে সামলে নিয়ে এগিয়ে যাওয়া হয় অনেক সহজ। তাই একে অন্যকে সাহায্য করে গড়ে তুলুন কর্মক্ষেত্র ও সংসারের মধ্যে সুন্দর এক ভারসাম্য।

Related posts