November 18, 2018

কঠোর হচ্ছে খুলনা জেলা পুলিশ

516
খুলনা থেকেঃ   জেলার আইনশৃঙ্খলা ইস্যুতে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে খুলনা জেলা পুলিশ। মাদক চোরাচালান, যানবাহন চলাচল, সনদ ব্যতিত চিকিৎসা সেবা প্রদান ইস্যুতে নানা অভিযোগের প্রেক্ষিতে তারা আরও জোরালো অভিযানে নামছে।

খুলনা জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

মহানগরীতে থ্রি হুইলার গাড়ির চালকদের লাইসেন্স, গাড়ির রেজিস্ট্রশনসহ অন্যান্য কাগজপত্র কঠোরভাবে পরীক্ষা ও যাচাই-বাচাই করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়। একইসঙ্গে থ্রি হুইলার ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী বহনকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ এবং চালকের পাশে কোনো যাত্রী বসানো যাবে না- মর্মে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

মহানগরীর প্রত্যেকটি থানা ও উপজেলা ভিত্তিক ইমামদের বায়োডাটা সংরক্ষণ করে কর্মকর্তা এবং জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে মতবিনিময় সভা করার জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

অবৈধ ক্লিনিক এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা এবং মাদকের বিরুদ্ধে জোরালো অভিযান অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এছাড়া সভায় ডাকবাংলা থেকে পিকচার প্যালেস মোড়সহ নগরীর বিভিন্ন রাস্তার দুপাশে অবৈধ হকার উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রাখা, রেজিস্টার্ডবিহীন মোটর সাইকেল, ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যতীত মোটরসাইকেল চালানো, ১৮ বছরের নিচে কিশোরদের মোটরসাইকেল চালানো এবং বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল আরোহীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়।

আইনশৃঙ্খলা প্রতিবেদনে জানানো হয়, খুলনা মহানগরীর আটটি থানায় ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে চুরি ১টি, খুন ৩টি, অস্ত্র আইনে ২টি, ধর্ষণ ১টি, নারী ও শিশু নির্যাতন ৫টি, নারী ও শিশু পাচার ৩টি, মাদকদ্রব্য ৭৮টি এবং অন্যান্য ৩৩টিসহ মোট ১৩৪টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জেলার ৯টি থানায় ডিসেম্বর মাসে চুরি ৩টি, খুন ৩টি, অস্ত্র আইনে ৫টি, দ্রুত বিচার ১টি, ধর্ষণ ২টি, নারী ও শিশু নির্যাতন ৮টি, মাদকদ্রব্য ২৩টি এবং অন্যান্য আইনে ৭৫টিসহ মোট ১২০টি মামলা দায়ের করা হয়। নভেম্বর মাসে মামলা দায়ের হয়েছিল ১৪৪টি।

জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বুধবার সকালে এই সভায় সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোঃ হাবিবুল হক খান। সভায় খুলনা জেলা পরিষদ প্রশাসক শেখ হারুনুর রশিদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নুর-ই-আলম, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার, উপজেলা চেয়ারম্যান, কেএমপি প্রতিনিধি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts