November 19, 2018

কক্সবাজারের পর্যটন স্পটগুলোতে নেই পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা!

38

অজিত কুমার দাশ হিমু,কক্সবাজারঃ  বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতের পর্যটন রাজধানী কক্সবাজার। এখানে প্রতিবছর গড়ে ১০-১২ লাখ পর্যটক ভ্রমণ করেন। কিন্তু পর্যটদের নিরাপত্তায় এখানে নেই পর্যাপ্ত সংখ্যক নিরাপত্ত কর্মীসহ সিসি ক্যামেরা। পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা সামান্য উদ্যোগ নিলেও তা পর্যাপ্ত নয়। অন্যদিকে এ ব্যাপারে সরকারি উদ্যোগও অনেকটা দায়সারা।

এ অবস্থায় ব্যবসায়ীদের দাবি, গুরুত্বপূর্ণ স্পট সমূহে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের। আর সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ১৬ স্পটে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে।

বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে পর্যটকদের আকর্ষণের জন্য রয়েছে পাহাড়, ঝর্ণা, কানা রাজার গুহা, মহেশখালীর আদিনাথ, সোনাদিয়া, পাথুরে বীচ ইনানী, বৌদ্ধ পুরাকৃত্তি রামু সহ প্রবালদ্বীপ সেন্টমার্টিনের মতো পর্যটন স্পট। তাই সুযোগ পেলেই এখানে ছুটে আসেন দেশি-বিদেশি হাজার হাজার পর্যটক।

পর্যটনের ভর মৌসুমে এখন প্রতিদিনই আসছেন ৩০-৩৫ হাজারের অধিক ভ্রমণ পিপাসু। তাদের নিরাপত্তায় হোটেলগুলোতে রয়েছে সিসি ক্যামেরা ও নিরাপত্তা কর্মী। কিন্তু পর্যটকদের নিরাপত্তায় সৈকত সহ গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন স্পটগুলোতে নেই সিসি ক্যামেরাসহ পর্যাপ্ত নিরাপত্ত কর্মী।

তাই ব্যবসায়ীদের দাবি, গুরুত্বপূর্ণ স্পটগুলোতে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের পাশাপাশি সরকারি উদ্যোগে নিরাপত্তাকর্মী বাড়ানোর। অবশ্য কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার হোসাইন মো. রায়হান কাজেমী জানালেন, সৈকত এলাকার গুরুত্বপূর্ণ ১৬টি পয়েন্ট চিহ্নিত করে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে। পাশাপাশি অন্যান্য পর্যটন স্পটগুলোতেও সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে।

নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করা গেলে এখানে দেশি-বিদেশি পর্যটকের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে মনে করেন পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts