November 17, 2018

ওয়াশিংটনস্থ দূতাবাস অনুষ্ঠানে আবারো “বাকীর” দুর্ব্যবহার

হাকিকুল ইসলাম খোকন,বিশেষ সংবাদদাতাঃ গত ১৬ই এপ্রিল ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে অনুষ্ঠিত বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে দূতাবাস কর্তৃক আমন্ত্রিত স্থানীয় এক সাংস্কৃতিক কর্মীর সাথে গত ১৫ই অগাস্টে  দূতাবাসে মারপিটের ঘটনার মূল হোতা এম এন বাকী প্রচণ্ড দুর্ব্যহার করেন।

তাতে উপস্থিত সকলেই হতবাক হয়ে পরেন। জানা যায় যে  শম্পা বণিক নামক স্থানীয় সাংস্কৃতিক কর্মী দূতাবাসের আমন্ত্রনে নিজে ও তাঁর ছোট্ট কন্যাকে অনুষ্ঠানে গান করতে উপস্থিত হলে উক্ত বাকী তাঁর সাথে প্রচণ্ড দুর্ব্যবহার করেন। এসময়ে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক হারুন চোধুরী সহ উর্ধতন দূতাবাস কর্মকর্তাগন।

এমন আনন্দঘন পরিবেশে সম্পুর্ন বিনা কারনে দূতাবাস কর্তৃক নিমন্ত্রিত অতিথির সাথে দুর্ব্যবহারে সকলেই হতবিহবল হয়ে পরেন। শম্পা বণিক সাথে সাথে দূতাবাস ছেড়ে চলে আসতে উদ্যত হলে কন্সুলার মিনিস্টার মোঃ সামসুল আলম চৌধুরীর হস্তক্ষেপ ও আশ্বাসে শেষ পর্যন্ত অনুষ্ঠানে নিজ কন্যাকে নিয়ে অংশগ্রহণ করেন। এবিষয়ে দূতাবাসের উর্ধতন কতৃপক্ষের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নিবেন বলে  তিনি শম্পা বণিককে আশ্বাস প্রদান করেন।

এদিকে বাংলাদেশী কমিউনিটিতে এব্যাপারে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে ব্যক্তি একের পর এক সমাজের বিশিষ্ট জনের সাথে প্রতিনিয়ত দুর্ব্যবহার, গালিগালাজ ও মারপিট করে আসছে বছরের পর বছর তাঁর খুটির জোর কোথায় যে এর পরও সে নিয়ত দূতবাসের অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রিত অতিথি হয়ে উপস্থিত থেকে বারচবার অপ্রীতিকর ঘটনার জন্ম দেয়।

উল্লেখ্য যে গত ১৫ অগাস্টে দূতাবাসে অপ্রীতিকর ঘটনার পর থেকে প্রতিটি অনুষ্ঠানে এক মাত্র নিমন্ত্রিত অতিথিরাই উপস্থিত হতে পারেন। তা হলে প্রশ্ন থাকে যে ব্যক্তি সকল অপ্রীতিকর ঘটনার হোতা তাকে কেন বারবার এই প্রশ্রয় দেয়া। অনতিবিলম্বে সকলেই এর প্রতিকার দাবী করেন। এখানে আরো উল্লেখ্য যে শম্পা বণিক আসন্ন ফোবানা ২০১৬ এর সাংস্কৃতিক উপকমিটির উপ-প্রধান হিসেবে নিযুক্তি পেয়েছেন।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/১৯ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts