November 19, 2018

ওয়ার্নার একা বিরাট, এবি, সরফরাজকে কীভাবে হারাবেন!


ওয়েব ডেস্ক: এ ম্যাচ সানরাইজার্স হায়দরাবাদের জেতার কথা ছিল না। জেতেওনি। বিরাট কোহলি যে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন, তাতে আইপিএলেও শুরুটা ভালো হওয়ার কথা ছিল। সেটাই হল। একবারও আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হতে না পারা রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর, নবম আইপিএল অভিযানের শুরুটা ভালোই করল। প্রথম ম্যাচে তারা সূর্য ডুবিয়ে দিয়ে জিতে গেল ৪৫ রানে।

এদিন বেঙ্গালুরুতে টস জিতেছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। প্রথমে ব্যাট করে আরসিবি। ক্রিস গেইল ফিরে গিয়েছেন মাত্র ১ রান করে। তাতেও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর, সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে তুলে ফেলল, ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ২২৭ রান! সৌজন্যে ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি এবং দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডিভিলিয়ার্স! মাত্র ৬ রানে ১ উইকেট (গেইল) পড়ে যাওয়ার পর বিরাট এবং এবিডির জুটি ভাঙল ১৬৩ রানে গিয়ে! বিরাট কোহলি খেললেন ৫১ বলে ৭৫ রানের ঝকঝকে ইনিংস। তাঁকেও ছাপিয়ে গেলেন এবিডি। তিনি করলেন মাত্র ৪২ বলে ৮২ রান! এরপর মাত্র ৮ বলে ১৯ রানের দাপুটে ইনিংস খেলেন এবারই রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সে আসা শেন ওয়াটসন। ছোট কিন্তু দুর্দান্ত ইনিংস সরফরাজেরও। তিনি করলেন মাত্র ১০ বলে অপরাজিত ৩৫ রান! কেদার যাদব অপরাজিত ছিলেন ৬ বলে ৮ রান করে। সানরাইজার্সের হয়ে দুটো করে উইকেট পেলেন ভুবনেশ্বর কুমার এবং মুস্তাফিজুর রহমান। মুস্তাফিজুর তো নিজের প্রথম তিন ওভারে মাত্র ১৩ রান দিয়ে দু উইকেট তুলে নিয়েছিলেন। যদিও ইনিংসের শেষ ওভারে বল করতে এসে তিনি দিয়ে ফেলেন ১৩ রান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করেছিল সানরাইজার্সও। সৌজন্যে তাদের ক্যাপ্টেন ডেভিড ওয়ার্নার। তিনি করেন ২৫ বলে ৫৮ রান। শিখর ধাওয়ান অবশ্য মাত্র ৮ রান করেই আউট হয়ে যান। মোজেস এনরিকস করেন ২৩ বলে ১৯ রান। ১৮ বলে ২২ রান করে অপরাজিত থাকেন ইয়ন মর্গান। ১৮ বলে ৩২ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন আশিস রেড্ডি। ১৭ বলে ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন করণ শর্মাও। কিন্তু মিডল অর্ডারে নমন ওঝার ০ এবং দীপক হুডার ৬ রান হায়দরাবাদকে বিপদে ফেলে দেয়। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮২ রান তুলতে পারে সানরাইজার্স। আরসিবির হয়ে দুটো করে উইকেট নেন ওয়াটসন এবং চাহাল। একটি করে উইকেট পান পারভেজ রসুল এবং মিলনে।

Related posts