September 19, 2018

ওয়াদুদ ভুইয়াকে নির্বাচনী এলাকা ত্যাগে প্রশাসনের চাপ!

আল-মামুন,খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য ও পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়নবোর্ডের চেয়ারম্যান ওয়াদুদ ভূইয়াকে নিজ নির্বাচনী পৌর এলাকা খাগড়াছড়ি ছাড়তে পুলিশবাহিনী চাপ প্রয়োগ করছে। এই এলাকার দু’বারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য হিসেবে, গণমানুষের নেতা হিসেবে ধানের শীষ প্রতীকের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের পক্ষে প্রচারণা চালানো এবং ভোটার হিসেবে ভোট প্রদান করা ওয়াদুদ ভূইয়ার সাংবিধানিক অধিকার। অথচ বিএনপি প্রার্থীদের বিজয় ঠেকাতে পুলিশবাহিনী ওয়াদুদ ভুইয়াকে এলাকা ত্যাগে চাপ দিচ্ছে। অপরদিকে সাধারণ ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে না যেতে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের একাংশের মেয়র প্রার্থী রফিকুল আলম ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার আওয়ামী লীগ প্রার্থী শামসুল হকের নিজস্ব ক্যাডার বাহিনী।

এছাড়া নির্বাচনী প্রচারণার শুরু থেকে এখন পর্যন্ত খাগড়াছড়ি পৌরসভার আওয়ামী লীগের একাংশের মেয়র প্রার্থী রফিকুল আলম ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার আওয়ামী লীগ প্রার্থী শামসুল হক নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছে। সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাদের এ নিয়ে দফায় দফায় লিখিত ও মৌখিকভাবে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি। প্রশাসন ও রিটার্নিং কর্মকর্তারা নীরব ভূমিকা পালন করে আচরণবিধি লঙ্ঘনকারীদের উৎসাহিত করছে। এদিকে গত মঙ্গলবার রাতে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার আদর্শগ্রাম এলাকায় উপজেলা কৃষকদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি নজরুল ইসলামকে হত্যার মাধ্যমে নির্বাচনী পরিবেশ সম্পূর্ণ নষ্ট করে দেয়া হয়েছে এবং জনমনে চরম আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়েছে।

নিহত কৃষক দল নেতার স্ত্রীকে গভীর রাতে তুলে নিয়ে গিয়ে প্রশাসনের মনগড়া এফ.আই.আর -এ স্বাক্ষর  দিতে বাধ্য করেছে। এতে প্রকৃত আসামীদের আঁড়াল করা হয়েছে। ফলে নিহত ব্যক্তির পরিবার বা দল হিসেবে আমরা এই হত্যাকান্ডের ঘটনায় স্বাধীনভাবে একটি মামলা করা থেকেও বি ত হয়েছি। পাশাপাশি মাটিরাঙ্গা উপজেলা, পৌর বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠন আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশ করতেও বাঁধা প্রদান করেছে প্রশাসন।
সুতরাং অচিরেই সেনা মোতায়েনের মাধ্যমে নির্বাচনী লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করা না হলে এবং পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি-বাঙালি সম্প্রদায়ের জনপ্রিয় নেতা ওয়াদুদ ভূইয়াকে নিজ এলাকায় থাকতে দেয়া না হলে খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবে।

আমরা আশাকরি প্রশাসন আমাদেরকে সেদিকে ঠেলে দেবেন না। আমরা সুষ্ঠু ও উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন করতে চাই। খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মিল্লাত স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য পাওয়া যায়। খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মিল্লাত স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য পাওয়া যায়।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts