November 17, 2018

‘এ’ পজিটিভের রোগী শরীরে ‘ও’ পজিটিভ রক্ত!

‘এ’ পজিটিভ শরীরে ‘ও’ পজিটিভ রক্ত

স্টাফ রিপোর্টারঃ   মঙ্গলবার দুপুরের চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার বাসিন্দা মরিয়ম বেগমকে (৬০) চট্টগ্রামে জেমিসন রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির রক্ত পরিসঞ্চালন কেন্দ্রে ‘এ’ পজিটিভ রক্তের পরিবর্তে ‘ও’ পজিটিভ রক্ত দেওয়া হয়েছে।

পরে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে ‘ও’ সর্বজনীন দাতা গ্রুপ হওয়ায় মরিয়ম প্রাণে বেঁচে গেছেন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

রেডক্রিসেন্ট রক্ত পরিসঞ্চালন কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা ডা. মিনহাজ উদ্দিন তাহের  বলেন, একই সময়ে একই নামের দুজন রোগী থাকায় এ ভুল হয়েছে।

“পরে চমেকে গিয়ে আমি রোগীকে দেখে এসেছি। রক্তের গ্রুপ ‘ও’ পজিটিভ হওয়ায় তার শারীরিক কোনো সমস্যা হবে না। তিনি ভালো আছেন।”

মরিয়মের দেবর জসিম উদ্দিন বলেন, “চমেকের চিকিৎসকরাও বলেছেন ‘ও’ পজিটিভ হওয়ায় সমস্যা হবে না। তবে অন্য কোনো গ্রুপের রক্ত হলে ভাবি মারাও যেতে পারতেন।”

মরিয়ম কিডনি জটিলতায় আক্রান্ত। তার রক্তের গ্রুপ ‘এ’ পজিটিভ। তাকে রক্ত দিতে এক স্বজন আন্দরকিল্লার জেমিসন রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির রক্ত পরিসঞ্চালন কেন্দ্রে এক ব্যাগ রক্ত দিয়ে যান।

জসিম বলেন, “ওই আত্মীয় রক্ত দিয়ে যাওয়ার পর কেন্দ্রের লোকজন এক ব্যাগ ‘ও’ পজিটিভ রক্ত আমার ভাবির শরীরে দেয়। তখন আমরা বিষয়টি কেন্দ্রের চিকিৎসক ও অন্য লোকজনকে জানাই।”

মরিয়ম বেগম নামে অন্য একজন রোগীও সেসময় সেখানে ছিলেন বলে জসিম জানান।

“তার রক্তের গ্রুপ ‘ও’ পজিটিভ। কেন্দ্রের লোকজন আইডি না মিলিয়ে ভাবিকে ওই রোগীর জন্য সংগৃহীত রক্ত দিয়ে দেয়।”

ঘটনা জানাজানি হলে রোগীর স্বজনার ওই কেন্দ্রে গিয়ে বিক্ষোভ করে। সেখানে পুলিশ গিয়ে সবাইকে শান্ত করে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts