November 16, 2018

এ কেমন সিদ্ধান্ত, টস ছাড়াই ক্রিকেট ম্যাচ!

স্পোর্টস ডেস্কঃ    একশ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে অনেক পরিবর্তনই এসেছে ক্রিকেটবিশ্বে। টেস্ট, ওয়ানডে পেরিয়ে শুরু হয়েছে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের যুগ। ক্রিকেটীয় নিয়মকানুনেও এসেছে অনেক পরিবর্তন। কিন্তু ব্যাট-বলের এ লড়াইয়ে একটা জিনিস ছিল চিরন্তন। ম্যাচ শুরুর আগে কয়েন টস। যেকোনো ধরনের ক্রিকেট ম্যাচ শুরুর আগে এই টস নামের ভাগ্য পরীক্ষায় নামতে হতো দুই দলের অধিনায়ককে। কিন্তু এবার সেখানেও এসেছে পরিবর্তন। ইংলিশ কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে টস ছাড়াই অনুষ্ঠিত হয়েছে চারটি ম্যাচ।

রোববার থেকে শুরু হয়েছে ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট প্রতিযোগিতা কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ। ১২৫ বছরের ইতিহাসে কয়েন টস ছাড়া কাউন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে এবারই প্রথমবারের মতো। স্বাগতিক দল যেন নিজেদের মতো পিচ তৈরির সুবিধা কাজে লাগাতে না পারে, তা নিশ্চিত করার জন্যই এবারের কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে টস ছাড়া ম্যাচ অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে এক বছর পরীক্ষামূলকভাবে চলবে এই টসবিহীন ক্রিকেট।

ক্রিকেট ম্যাচে প্রায়ই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে পিচের ধরন। নিজেদের শক্তি-সামর্থ্য অনুযায়ী পিচ তৈরি করার সুযোগও থাকে স্বাগতিক দলগুলোর। কিন্তু তারা যেন এ সুবিধা কাজে লাগাতে না পারে, সে জন্য টস না করে অতিথি দলের অধিনায়ককে আগে ফিল্ডিং করার নিয়ম চালু করা হয়েছে এবারের কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে। প্রথম দিনের পাঁচটি ম্যাচের চারটিতেই টসভাগ্য পরীক্ষায় না গিয়ে সরাসরি ফিল্ডিংয়ে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চারটি দল। একমাত্র ব্যতিক্রম গ্লুচেস্টারশায়ার। এই দলের অধিনায়ক গ্যারেথ রডেরিক গেছেন টসভাগ্য পরীক্ষায়। টস জিতে তিনি নিয়েছেন ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত।

ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে পরীক্ষামূলকভাবে শুরু হওয়া এই নতুন নিয়ম একসময় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও দেখা যাবে কি না, সেটাই দেখার বিষয়।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/১১ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts