September 23, 2018

এসি’র শীতল হাওয়া, শাহআলম-বিশ্বাসের আহবানে কর্মীদের ক্ষোভ!

রফিকুল ইসলাম রফিক,নারায়ণগঞ্জঃ  নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার মধ্যে ফতুল্লা থানা এলাকার দুটি ইউনিয়নে নির্বাচন হলেও একটিতে নেই বিএনপির কোন প্রার্থী। অপরটিতে থাকলেও সেখানে এখন পর্যন্ত মাঠে নামেনি থানা বিএনপির সভাপতি ও সেক্রেটারী। বরং তপ্ত রোদের মধ্যেও দলের কর্মীরা যখন হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করছে তখন শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষে বসেই এ দুইজন কর্মীদের বলছেন মাঠে থাকতে। আর নেতাদের কণ্ঠে এ ঘোষণায় কর্মীরা রীতিমত ফুঁসে উঠতে শুরু করেছে।

জানা গেছে, আগামী ২৩ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে কুতুবপুর ও এনায়েত নগর ইউনিয়ন পরিষদের ভোট। এর মধ্যে এনায়েতনগরে বিএনপির প্রার্থী হয়েছেন মাহমুদুল ইসলাম আলমগীর। থানা বিএনপি তাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। আর কুতুবপুরে বিএনপির কোন প্রার্থী নাই। সেখানে বিএনপির প্রার্থী আকবর আলী প্রার্থী হতে চাইলেও হুমকির কারণে তিনি মনোনয়ন জমা দিতে পারেনি। যদিও সে ব্যাপারে থানা বিএনপি কোন ধরনের প্রতিবাদ কিংবা বিবৃতি দেয়নি। অন্যদিকে এনায়েতনগরে বিএনপি প্রার্থীর পক্ষে একদিনও মাঠে নামেনি।

অথচ থানা বিএনপির সেক্রেটারী আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাসকে শনিবার দেখা গেছে রোদের মধ্যেও এমপি সেলিম ওসমানের সঙ্গে আলীরটেকের মুক্তারকান্দি এলাকাতে উপস্থিত হতে। অথচ তিনি কখনো বিএনপি প্রার্থীর পক্ষে মাঠে নামেনি। উপরন্তু আজাদ বিশ্বাসের বিরুদ্ধে ফতুল্লা ও সদরের বিভিন্ন ইউনিয়নের বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীদের বসিয়ে দেওয়ার অভিযোগ আছে। এসব নিয়ে যখন সম্প্রতি জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমূর আলম খন্দকারের মাসদাইরের বাসায় সভা হয় তখন আজাদ বিশ্বাসকে দল থেকে বহিস্কারের দাবী উঠে। সেদিন সভায় আজাদ বিশ্বাস উপস্থিত হলে চরম তোপের মুখে পড়ে।

এদিকে গত মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলার এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী অ্যাডভোকেট মাহামুদুল হক আলমগীরের পক্ষে কাজ করার জন্য আহবান জানিয়েছেন জেলা বিএনপির সহ সভাপতি ও ফতুল্লা থানা বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ শাহআলম। নির্বাচনে প্রার্থীকে জয়ী না করানো পর্যন্ত মাঠে থাকার জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার রাতে ফতুল্লায় নিজ বাসভবনে নেতাকর্মীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ আহবান জানান মোহাম্মদ শাহআলম।

জানা গেছে, ওই সভাটি যেখানে হয়েছে সেটা ছিল শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ। শুধুমাত্র ব্যবসার জন্য তিনি রাজনীতি করেন শাহআলম এমন অভিযোগ আগে থেকেই। কারণ বিগত দিনে তিনি কোন ধরনের আন্দোলন সংগ্রামে মাঠে নামেনি তিনি।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/১৭ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts