September 23, 2018

এমন ঘটতে থাকলে ক্রিকেট ছেড়ে দিব: তামিম

স্পোর্টস ডেস্কঃ   সোমবার বিপিএলে চিটাগং ভাইকিংস নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে প্রথম জয়ের দেখা পেয়েছে। রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে এক রানে তারা হারিয়েছে সিলেট সুপার স্টার্সকে। প্রথম ম্যাচে হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচে জয়, নিঃসন্দেহে

চিটাগং ভাইকিংসের অধিনায়ক তামিম ইকবাল

স্বস্তির পরশ বুলিয়ে দিচ্ছে চিটাগং শিবিরে। তবে দলটির অধিনায়ক তামিম ইকবাল বেশ ক্ষুব্ধ ও হতাশ। সেটা সিলেট ফ্রাঞ্চাইজির কর্মকর্তাদের বাজে আচরণের কারণে। যাতে বেশ অপমানিত হয়েছেন তিনি। আর সে কারণেই তিনি বলেছেন, ‘ফ্রাঞ্চাইজি কর্মকর্তাদের কাছে এমন অপমানিত হতে থাকলে ক্রিকেটই ছেড়ে দেব’।

আসল ঘটনা আসলে ম্যাচের আগে। যেখানে ইংলিশ দুই ক্রিকেটার রবি বোপারা ও জশুয়া কবের ম্যাচে অংশগ্রহণ নিয়ে। প্রথমে তাদের দুজনের ছিল না এনওসি (অনাপত্তি পত্র)। এ ফাঁকে দলীয় খেলোয়াড় তালিকা নিয়ে টস করে ফেলেন মুশফিক। টসের পর দেখা গেলো এনওসি জমা দেয়া হলো বিসিবিতে। সিলেট সিদ্ধান্ত নিল দুই ইংলিশ ক্রিকেটার খেলাবে। কিন্তু বাদ সেধে বসলো চিটাগাং। তাদের যে তালিকা দেয়া হয়েছিল, সেখানে তো নেই জশুয়া কব আর রবি বোপারার নাম! এ নিয়ে সিলেট ফ্রাঞ্চাইজি কর্মকর্তাদের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয় চিটাগং অধিনায়ক তামিম ইকবালের। তামিমের অভিযোগ, ঐ সময় সেই কর্মকর্তারা তাকে বাজে ভাষায় আক্রমণ করে। যা তাকে অপমানিত করেছে।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এই প্রসঙ্গে উঠতেই তামিম বেশ হতাশ কণ্ঠে বলেন, ‘আমি একজন জাতীয় দলের ক্রিকেটার। সেখানে বিপিএলের মতো টুর্নামেন্টে কোন ফ্রাঞ্চাইজির কর্মকর্তারা আমার পরিবার নিয়ে কটুক্তি করবে, তা আমি মেনে নিতে পারি না। সেই সময় আমার সঙ্গে ভিক্ষুকের মতো আচরণ করা হয়েছে। এমন যদি ধারাবাহিকভাবে ঘটতে থাকে, তাহলে ক্রিকেটই ছেড়ে দেব’।

এখানেই থেমে নেই তামিম। বিষয়টি নিয়ে বিসিবির দ্বারস্থ হবেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আমি অবশ্য বিপিএলের ডিসিপ্লিনারি কমিটির কাছে বিষয়টি তুলে ধরব। আশা করি তারা সুরাহা করবে বিষয়টি।’

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts