September 25, 2018

এক ক্রুনালের কাছেই পারলো না দিল্লি !

স্পোর্টস ডেস্কঃ   দিনটা ছিল ক্রুনাল পান্ডিয়ার। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের এই অল রাউন্ডার প্রথমে ৩৭ বলে ৮৬ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেছেন। যাতে ৭টি চার ও ৬টি ছক্কা। ৫০ করছেন ২২ বলে। রবিবার বিশাখাপত্তমে দল তাতে পেয়েছে ৪ উইকেটে ২০৬ রানের বড় সংগ্রহ। এরপর দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের ধ্বংসেও ক্রুনালের হাত। বাঁ হাতি স্পিনে ২.১ ওভারে ১৫ রানে নিয়েছেন ২ উইকেট। ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার তারই। আর শেষ চারে ওঠার লড়াইয়ে থাকা মুম্বাই ৮০ রানের বিশাল জয়ই পেয়েছে। ১৯.১ ওভারে ১২৬ রানে অল আউট হয়েছে দিল্লি।

১৩ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই উঠে গেলো পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে। ১১ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট দিল্লির। আসলে ২০৭ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই খুড়িয়েছে দিল্লি। ধারাবাহিক কুইন্টন ডি কক এক প্রান্ত ধরে রাখলেন। কিন্তু অন্য প্রান্তে উইকেট পড়তে থাকলো। ৬০ রানে ৩ উইকেট হারিয়েছে দিল্লি। এরপর ডি কককে তুলে নিয়েছেন ক্রুনাল। ২৮ বলে ইনিংস সর্বোচ্চ ৪০ রান ডি ককের।

ভিন্ন অ্যাকশনের পেসার জসপ্রিত বুমরাহ এর পর আঘাত হানেন। একই ওভারে তিনি তুলে নেন জেপি ডুমিনি (৯) ও রিশাব পান্তকে (২৩)। ক্রিস মরিস হাল ধরার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু ২০ রান করেছেন। শেষ উইকেটটি নিয়েছেন ক্রুনাল। দিল্লির ৮ ব্যাটসম্যানই দুই অঙ্কে পৌঁছাতে পারেননি।

এর আগের গল্পটা মূলত ক্রুনালের। তার তিন নম্বরে ব্যাট করা ছিল চমক। দলের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন ক্রুনাল ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলে। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরু পেয়েছে মুম্বাই। অধিনায়ক রোহিত শর্মা ২১ বলে ৩১ রানের ইনিংস খেলে গেছেন। সপ্তম ওভারে ক্রিজে আসেন ক্রুনাল। মার্টিন গাপ্টিল তখন দলকে এগিয়ে নিচ্ছেন। ক্রুনাল কিছুক্ষণের মধ্যে দিল্লির বোলারদের নাভিশ্বাস তুলে ফেলতে শুরু করেন।

অমিত মিশ্রাকে একটি চার ও ছক্কায় দিকভ্রান্ত করেছেন ক্রুনাল। ইমরান তাহির এক ওভারে দিলেন ২৩ রান। যাতে গাপ্টিলের দুই ছক্কা। ক্রুনালের একটি করে ছক্কা ও চার। এরপর টানা দুই বলে চার ও ছক্কা মেরে আইপিএলে নিজের প্রথম ফিফটিতে পৌঁছেছেন ক্রুনাল। গাপ্টিল ৪২ বলে ৪৮ রান করে বিদায় নেন। পরের ওভারেই মিশ্রাকে দুটি ছক্কা ও একটি চার মারেন ক্রুনাল। মনে হচ্ছিল তার সেঞ্চুরি হবে। কিন্তু ক্রিস মরিস ১৮তম ওভারে তাকে বোল্ড করে হতাশা নিয়ে ফিরতে বাধ্য করেন ক্রুনালকে। এরপর জশ বাটলার (১৮) ও আম্বাতি রাইডু (১৩) অপরাজিত থেকে দলে রান দুই শো পার করেছেন।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/১৬ মে ২০১৬

Related posts