November 19, 2018

একজন চোখ বাঁধা মুসলমানকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন প্যারিসবাসী!

চোখ বাঁধা মুসলমানকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন প্যারিসবাসী

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ   জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট গত শুক্রবার প্যারিসে হামলা করার পরে ১২৯ জন মানুষ মারা যান।  সেখানে একজন চোখ বাঁধা মুসলমানকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন প্যারিসবাসী।

নিহতদের স্মরণে কাতর যখন গোটা প্যারিসবাসী ঠিক এই সময় তারা দেখলো একজন চোখবাঁধা মুসলমান ব্যক্তি ২টা ব্যানার নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন রাস্তায়। ১ম ব্যানারে লেখা ‘আমি একজন মুসলিম কিন্তু আমাকে বলা হয়েছে আমি একজন সন্ত্রাসী’, ২য় ব্যানারে লেখা ‘আমি তোমাদের বিশ্বাস করি, তোমরা কি আমাকে বিশ্বাস করবে?’

ইসলামিক স্টেটের(আইএস) বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসী হামলার ফলে সারা বিশ্বের মুসলমানেরা চাপের মুখে পড়েছে। ২০০১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ভয়াবহ টুইনটাওয়ার হামলার পরেও সবখানে মুসলমানেরা এই ধরনের সঙ্কটে পড়েছিলেন। পশ্চিমা মানুষেরা ভাবতে শুরু করেছিল মুসলমান মানেই ধর্মান্ধ সন্ত্রাসী। এবারো ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে।

কিন্তু প্যারিস শহরের এই মুসলমান ভদ্রলোক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। তিনি দুঃসাহস নিয়ে প্রকাশ্যে প্রমাণ করলেন একজন মুসলমান আর একজন ধর্মান্ধ সন্ত্রাসীর পার্থক্য। প্যারিসবাসী এই মুসলমানের অদ্ভুত সুন্দর প্রতিবাদের ঘটনায় উষ্ণ সাড়া দিয়েছেন। তারা সবাই এই মুসলমানকে জড়িয়ে ধরে একসাথে কেঁদেছেন।

একজন দুইজন ফরাসি নয়, যত মানুষ সেখানে উপস্থিত ছিলেন তারা প্রত্যেকে এই ভদ্রলোককে একে একে আলিঙ্গন করেন। একপর্যায়ে মুসলমান ব্যক্তি নিজের বাঁধা চোখ খোলেন এবং সবার উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমি কাজটা করেছি সবার কাছে এই তথ্যটা তুলে ধরার জন্য যে আমি একজন মুসলিম কিন্তু মুসলিম হওয়ায় আমি সন্ত্রাসী না। মুসলমান কখনোই নিরাপরাধ মানুষ হত্যা করেনা।’ তিনি প্যারিসে নিহত মানুষদের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts