September 20, 2018

এই বাজেট কৃষক মারার ক্ষমতা কুক্ষিগত রাখার বাজেটঃ কৃষক পরিষদ

২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরের বাজেট কৃষকের কল্যাণে কোন রূপ বরাদ্দ নাই। তাছাড়া কৃষক ফসল উৎপাদনে যে ব্যয় করে উৎপাদিত কৃষি পণ্যের বিক্রয় মূল্য অর্ধেক পায় না। দেশের শতকরা ৯৫ ভাগ মানুষ সরকার ও আন্তর্জাতিক সংস্থা কর্তৃক যে প্রবৃদ্ধির দাবী করে তা থেকে বঞ্চিত। তিন লক্ষ ৪০ হাজার ৬০৫ কোট টাকার বাজেটে সাধারণ মানুষের কোন কল্যাণে আসবেনা  বলেও বাংলাদেশ কৃষক পরিষদ এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন চৌধুরী ও মহাসচিব খন্দকার মাসুদ-উজ-জামান যুক্ত বিবৃতিতে উল্লেখ করেন। তারা যুক্ত বিবৃতিতে বলেন রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে বিচার বহির্ভূত হত্যা, বিচারের নামে হত্যা, খুন, গুম, অপহরণ ও কাল্পনিক মামলার মতই এ বাজেট।

তারা বলেন- বিনোয়গকারীদের নিরুৎসাহিত করায় স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশকে কলোনিয়াল শাসনের আশংকা রয়েছে। তারা আরো বলেন ৫ভাগ মানুষের বেতন-ভাতাদী ৯৫ ভাগ মানুষের রক্ত পানি ঝরে যে অর্থ উপার্জন করে তা দিয়ে পরিশোধ করে ক্ষমতা কুক্ষিগত রাখার মানুষিকতা পরিহার করে অবিলম্বে সকল রাজনৈতিক দলের কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করে পদ ত্যাগ করলে বিলবোর্ড আর বৈধ ও অবৈধ অস্ত্রধারীদের উপর বিনা ভোটে নির্বাচিত শাসকদের নির্ভর করতে হবে না। তারা বলেন রাজনৈতিক প্রতিপক্ষদের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার,  আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন করতে দেওয়া এবং প্রশাসনকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধি ছাড়া অন্য কোন শাসকের পক্ষে সম্ভব নয়।

তারা আরো বলেন কৃষি কাজে ব্যবহার্য্য সকল উপকরণ বিনামূলে সরবরাহ নিশ্চিত করতে বাজেটে অর্থ বরাদ্দ রাখতে হবে। ধানসহ কৃষি পণ্যের বিক্রয় উৎপাদন ব্যয়ের সাথে সমন্বয় করে মূল্য নির্ধারণ করতে হবে। এছাড়াও কৃষকসহ দেশে শতকরা ৯৫ ভাগ মানুষকে ব্যয়বহুল চিকিৎসাগুলো বিনামূল্যে করার জন্য বাজেটে স্বাস্থ্য খাতে পর্যাপ্ত বরাদ্দ দিতে হবে। এ বাজেট কৃষক মারার বাজেট। তাই বাজেটে কৃষকের স্বার্থ নিশ্চিত করতে স্পষ্ট করতে হবে। আলুসহ কাঁচামাল রাখতে সরকারীভাবে উপজেলা ভিত্তিক কোল্ডস্টোর নির্মাণের দাবী জানান।প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Related posts