November 21, 2018

উৎসবে প্রাণী কিংবা গাছ নিধনের প্রতীকী প্রতিবাদ

151

বিশেষ দিন উদযাপনে বিশেষ প্রাণী বা গাছ নিধনের ভিন্ন ধরনের প্রতিবাদ করেছে ইস্তানবুলে একদল নিরামিষভোজি তুর্কি নাগরিক। শনিবার গালাতাসারায় ময়দানে বড়দিন ও বর্ষবরণ উপলক্ষে বিশ্বব্যাপী আয়োজিত কোন উৎসবে পাইন গাছ ও টারকি হত্যা না করার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

বিশেষত খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীরা বড়দিন উপলক্ষে ক্রিসমাস ট্রি সাজাতে পাইন গাছ ব্যবহার করে থাকেন। এছাড়া বর্ষবরণ উপলক্ষে ইউরোপের বেশির ভাগ দেশে বিশেষ ভোজের আয়োজনে থাকে টারকি মুরগি। প্রতিবাদে অংশগ্রহণকারীরা এ দিকে দৃষ্টি কাড়তে ঢুকে গিয়েছিলেন দোকানে মুরগি বিক্রির প্রতিকী প্যাকেটে। মুরগির প্যাকেটে রক্তাক্ত মানুষের অবয়বে তারা ফুটিয়ে তোলে মৃত টারকি মুরগির প্রতিকী চিত্র।

নিরামিষী স্বাধীনতা সংঘ নামের দলটি গত পাঁচ বছর ধরেই নিয়মিত এ ধরনের প্রতিবাদ আয়োজন করে আসছে তুরস্কে। শুধু বড়দিন বা বর্ষবরণই নয়, তাদের আপত্তি মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব কোরবানিতেও। প্রতিবছর কোরবানির সময় ‘উৎসব স্বাগতম! কোরবানিকে না!’ শিরোনামে প্রতিবাদ করে তারা। মানুষের ‘ঐতিহ্য, বিশ্বাস বা উদযাপন’ এর দায় কোন নিরপরাধ প্রাণী বা গাছ বহন করতে পারে না বলে দাবি করেন তারা। নিরামিষী হয়ে তাই এসকল কাজ থেকে তারা নিজেরা বিরত থাকা ও অপরকে রাখায় বদ্ধ পরিকর।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/মেহেদী/ডেরি

Related posts