November 17, 2018

উপজেলা ঘোষনার ৫ বছর এখনও লিখা হয়নি ওসমানীনগর

130365মো. আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি ::সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার দয়ামীর ইউনিয়ন পরিষদ। উপজেলা ঘোষনার ৫ বছরেও ইউনিয়ন পরিষদের ভবনে রয়ে গেছে বালাগঞ্জ উপজেলার নাম। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে নানা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয়রা মনে করছেন, উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দয়ামীর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যন নির্বাচিত হওয়ায় তিনি ওসমানীর নামে ওসমনীনগর নাম লিখাতে অনিহা প্রকাশ করছেন।

জানা গেছে, ২০১৪ সালের ২ জুন ওসমানীনগর উপজেলা ঘোষনা হওয়ার পর শুরু হয় প্রশাসনিক কার্যক্রম। ৮ টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত এ উপজেলার দয়ামীর ইউনিয়ন ৭ নং।

বালাগঞ্জ উপজেলার অধিনে থাকাকালীন সময়ে প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদ ও সরকারী ভবনে বালাগঞ্জ উপজেলা লিখা থাকতো। ওসমানীনগরে প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর সরকারী প্রতিষ্ঠানে ও ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে বালাগঞ্জের স্থলে ওসমানীনগর উপজেলা লিখা হয়। কিন্তু দয়ামীর ইউনিয়ন পরিষদের রয়ে গেছে বালাগঞ্জ উপজেলার নাম।

উপজেলা ঘোষণা হওয়ার ৫ বছরেও ওসমানীনগর উপজেলা না লিখায় এ নিয়ে বেশ কিছুদিন থেকে আলোচনা – সমালোচনা চলে আসলেও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নাম বদলের কোন উদ্যোগ গ্রহন করছেন না।

২০১৬ সালে বিএনপি প্রার্থী এস টি ফখর উদ্দিন দয়ামীর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। দায়িত্ব গ্রহনের ৩ বছরেও ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে বালাগঞ্জের স্থলে ওসমানীনগর লিপিবদ্ধ করেননি।

দয়ামীর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিরন মিয়া বলেন, ওসমানীর সাহেবের বাড়ী দয়ামীর ইউনিয়নে। কিন্তু সারা দেশে ওসমানী সাহেবর নাম থাকলেও নিজ ইউনিয়নে উনি উপেক্ষিত। ওসমানী সাহেবের নামে থানা উপজেলা হলেও ইউনিয়ন পরিষদের ভবনে ওসমানীনগর না লিখাটা দুঃখ জনক।

এ ব্যাপারে বক্তব্য নেওয়ার জন্য দয়ামীর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এস টি ফখর উদ্দিনের মোবাইল ফোনে কল দিলে তিনি একটি মিটিং এ আছেন বলে ফোন কেটে দেন। পরর্তীতে একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি ফেন রিসিভ করেন নি।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক আতাউল গনি ওসমানী। আর ওসমানীকে স্মরণ করতে উনার নামেই থানা এবং উপজেলা ঘোষনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু কি কারনে দয়ামীর ইউনিয়ন পরিষদের ভবনে  ওসমানীনগর এর স্থলে বালাঞ্জ উপজেলা রয়ে গেল বিষয়টা খোঁজ নেওয়ার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করছি।

ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আনিছুর রহমান বলেন, আমি ইউনিয়ন চেয়ারম্যনকে বলে দিয়েছি তিনি যেন নামটা পরিবর্তন করেন।

Related posts