November 13, 2018

উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় রাবি শিক্ষার্থীকে পেটালো ছাত্রলীগ

স্টাফ রিপোর্টার: বান্ধবীকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের এক শিক্ষার্থীকে প্রকাশ্যে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছে মিরাজ ও রাহাত নামের দুই ছাত্রলীগ কর্মী। রোববার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাকসু ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মারধরকারী মিরাজ ও রাহাত রাবি ছাত্রলীগের কর্মী এবং মার্কেটিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।
আহত রনি হাসান সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী। মারধরের পর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেকে) প্রেরণ করা হয়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের নবীন বরণ চলাকালে কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনের ভিতরে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীকে উত্যক্ত করে মিরাজ রাহাতসহ অনেকে। অনুষ্ঠান শেষে ঐ ছাত্রী মিলনায়তনের বাইরে বের হলে তারা আবারও তাকে উত্ত্যক্ত করতে থাকে। এ সময় তার সহপাঠী রনি প্রতিবাদ করলে তাকে বেধড়ক মারধর করে মিরাজ-রাহাত। এতে রনির শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয় ও দুই চোখে বড় ধরনের আঘাত পায়। পরে রনির বন্ধুরা তাকে উদ্ধার করে বিশ^বিদ্যালয় মেডিকেল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রামেকে পাঠায় ।
ভুক্তভোগী রনি বলেন, ‘আমার বান্ধবীকে মিরাজ রাহতসহ বেশ কয়েকজন মিলে উত্ত্যক্ত করায় আমি প্রতিবাদ করি। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে মারধর করে’।
জানতে চাইলে ছাত্রলীগ কর্মী রাহাত বলেন, ‘ছোট হয়েও সে আমাদের সাথে বিয়াদবি করে । এতে আমার বন্ধু মিরাজ তাকে মারধর করে’।
মারধরের সত্যতা স্বীকার করে মিরাজ বলেন, ‘তাকে কথা বলার জন্য ডাকলে সে আমাদের সাথে খারাপ আচরণ করায় চড়-থাপ্পড় দিয়েছি’।
এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বলেন, ক্যাম্পাসের বাইরে থাকার কারণে বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত না। যদি এমন কোন ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে যথাযথ ব্যাবস্থা নেয়া হবে।
মারধরের ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক মজিবুল হক আজাদ খান বলেন, তিনি বিষয়টি জেনেছেন, তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।

Related posts