September 19, 2018

উত্তরায় মার্কেটের লিফট ছিঁড়ে ছয়জনের প্রাণহানি!


ঢাকাঃ   মার্কেট কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণে উত্তরার আজমপুরের ট্রপিক্যাল আলাউদ্দিন টাওয়ারের ক্যাপসুল লিফট ছিঁড়ে ছয়জনের প্রাণহানি হয়েছে বলে দোকান মালিক ও ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেছেন। তাদের অভিযোগ, গত একবছর ধরে লিফটের ত্রুটি ধরা পড়লেও তা সংস্কারে কোনও উদ্যোগ নেয়নি মার্কেট কর্তৃপক্ষ। শনিবার দুপুরে মার্কেটের দোকানী ও নিহতের স্বজনরা এই অভিযোগ করেন।

শুক্রবার ইফতারের সময় আলাউদ্দিন মার্কেটের সামনের বামপাশের ক্যাপসুল লিফটি ছিঁড়ে নিচে পড়ে যায়, এতে ঘটনাস্থলেই পাঁচজনের মৃত্যু হয়। শনিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে আরও একজনের মৃত্যু হয়। বর্তমানে মার্কেটটি বন্ধ রয়েছে। রাজউক জানিয়েছে মার্কেটটি ঝুঁকিপূর্ণ।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শপিং কমপ্লেক্সটির প্রবেশদ্বারের দু’পাশে দুটো লিফট রয়েছে। বাম পাশের লিফটটি ছিঁড়ে নিচে পড়ে রয়েছে। ভবনের সামনের রাস্তায় প্রচুর ভাঙা কাচের টুকরো ও কিছু জুতা-স্যান্ডেল, ভবনের ভেতরের দোকান-পাট থেকে ছিটকে আসা বিভিন্ন টুকরো জিনিসপত্র ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে। ভবনের ভেতরে পুলিশ কাউকে ঢুকতে দিচ্ছে না। শুধু ওই ভবনের ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের পরিচয় নিশ্চিত হয়ে তাদের ঢুকতে দিচ্ছে। ভবনের বাইরে থেকেই দেখা যায়, দোতলা ও তিনতলার এসির ফলস সিলিংয়ের বিভিন্ন অংশ ঝুলে রয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীরা জানিয়েছে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে বেজমেন্টে।

মার্কেটের ব্যবসায়ী সালাম জানান, গত বছর একই সময় রোজার দিনে ভবনের একটি লিফট একইভাবে ছিঁড়ে পড়েছিল। কিন্তু তখন মার্কেট কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। তখন সংস্কার করলে আজকে এত বড় দুর্ঘটনা ঘটত না। আমরা এখানে ব্যবসা করি। আমাদের কথার কোনও দাম নেই। লিফট নিয়মিত পরিজচর্যাও করা হয় না বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

শুক্রবারের ওই ঘটনায় ঘটনাস্থলেই ৫ জন নিহত হয়। নিহতরা হলেন, দক্ষিণখানের পূর্ব মোল্লার টেকের বাসিন্দা শেরপুর জেলার ত্রীবর্দির কয়রা গ্রামের মো. আনিসুর রহমানের স্ত্রী সালাম আক্তার (৪০), আজমপুর কাঁচা বাজারের বাসিন্দা ফরিদপুরের নগরকান্দার তালমা গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে রেজাউল করিম রানা (৩২), উত্তরা ১০ নম্বর সেক্টরের বাসিন্দা সিরাজদীখানের নাটের শুয়া গ্রামের দ্বীন মোহাম্মদের মেয়ে কামরুন নাহার লতা (৩০), তুরাগের যাত্রাবাড়ীর বাসিন্দা মাদারীপুরের শিবচরের রাজেরচর গ্রামের ওয়াজ মিয়ার ছেলে জসিম উদ্দিন রফিক (৩৫) ও আলাউদ্দিন টাওয়ারের সিকিউরিটি ইনচার্জ পাবনার আমিনপুরের খানপোয়া গ্রামের খোরশেদ কাজীর ছেলে কাজী মিজানুর রহমান (৫২)।

শনিবার ভোরে ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় ট্রপিক্যাল হোমস লিমিটেডের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার (এজিএম) ইঞ্জিনিয়ার মাহমুদুল হাসানের (৩৬)।

মাহমুদুল হাসান শুক্রবার সন্ধ্যায় দুই ছেলে-মেয়েকে নিয়ে ওই ভবনের নিচতলায় ট্রপিক্যাল হোমসের কার্যালয়ে ইফতার পার্টিতে যোগ দিতে গিয়েছিলেন। দুর্ঘটনায় টাওয়ারের বাম পাশের ক্যাপসুল লিফট রশি ছিঁড়ে বেইজমেন্টে পড়ে যায়। এ সময় ছেলে-মেয়েসহ তারা তিনজন আহত হন। তিনি উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরে পরিবার নিয়ে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি বগুড়া সদরে। আর ঘটনাস্থলেই পাঁচ জন মারা যান। এ ঘটনায় তাকে নিয়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬ এ দাঁড়িয়েছে। তার দুই সন্তানসহ তিনজন এখনও ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন।

শুক্রবার সন্ধ্যার ওই ঘটনা তদন্তে ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক জহুরুল আমিন মিয়াকে প্রধান করে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে ৭ দিনে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। অন্যদিকে গুরুতর দগ্ধ দুই শিশুর চিকিৎসার জন্য ৮ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের জাতীয় উপদেষ্টা অধ্যাপক সামন্ত লাল সেন জানান, মাহমুদুল হাসানের দুই সন্তান ৫৫ ভাগ দগ্ধ মেয়ে মাইশা (১০) ও ২৩ ভাগ দগ্ধ ৮ মাস বয়সী ছেলে মুস্তাকিমের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

তাদের চিকিৎসার জন্য বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদকে প্রধান করে ৮ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ জানান, ৬ জনের ময়নাতদন্তের পর তাদের স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়। তাদের মধ্যে দু’জন অগ্নিদগ্ধ ও অপর চার জন আঘাত পেয়ে মারা গেছেন।

অন্যদিকে কী কারণে আগুনের সূত্রপাত ও ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে জানতে চাইলে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহাম্মেদ খান জানান, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর তা জানা যাবে। উপ-পরিচালক জহুরুল আমিন মিয়াকে প্রধান করে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, ঢাকা বিভাগের উপ-পরিচালক মোজাম্মেল হক, সহকারী উপ-পরিচালক সালেহ উদ্দিন ও উত্তরা জোনের প্রধান সহকারী পরিচালক মাসুদুর রহমান আকন্দ। কমিটিকে ৭দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

পুলিশও বিষয়টি তদন্ত করছেন বলে জানিয়েছে ডিএমপির উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার বিধান ত্রিপুরা।

উল্লেখ্য, উত্তরা তিন নম্বর সেক্টরে ১৬ তলা ট্রপিক্যাল আলাউদ্দিন টাওয়ারের নিচের ছয় তলা পর্যন্ত পোশাক, অলঙ্কার ইলেক্ট্রনিক্স ও প্রসাধনী সামগ্রীর দোকানপাট। এছাড়া ১০ তলা পর্যন্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অফিস রয়েছে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ২৫ জুন ২০১৬

Related posts