September 25, 2018

উগ্রবাদ ঠেকাতে ‘কৌশল’ ঠিক করছেন খালেদা বললেন ফখরুল


ঢাকাঃ  বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে উগ্রবাদ প্রতিরোধে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কর্মকৌশল ঠিক করছেন বলে জানিয়েছেন।

সন্ত্রাস ও উগ্রবাদকে জাতির জন্য ‘মারাত্মক হুমকি’ হিসেবে বর্ণনা করে তা প্রতিরোধের উপায় নিয়ে খালেদা জিয়া ইতোমধ্যে আলোচনা শুরু করেছেন এবং সবার সঙ্গে কথা বলেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বলে শুক্রবার সাংবাদিকদের জানান তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এটাকে মোকাবেলা করার জন্য দেশনেত্রী জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছেন। জাতীয় ঐক্যের এই ডাকে তিনি পরবর্তী কী কী পদক্ষেপ নিতে পারেন, সেগুলো নিয়ে বিভিন্ন পেশাজীবীর সঙ্গে, বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে আলাপ শুরু করেছেন। সকলের সঙ্গে আলোচনা করেই দেশনেত্রী তার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন।’

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালিয়ে ১৭ বিদেশিসহ ২০ জনকে হত্যার পর জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে দল-মত নির্বিশেষ সবাইকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হতে সরকারকে আহ্বান জানান খালেদা।

তবে সাম্প্রতিক জঙ্গি তৎপরতার জন্য জামায়াতের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে এবং তার দলটিকে পৃষ্ঠপোষকতার জন্য খালেদা জিয়াকে দায়ী করে তার আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেন আওয়ামী লীগের নেতারা।

রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীকে দেখার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন মির্জা ফখরুল। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপেদেষ্টা এজেডএম জাহিদ হোসেনে এসময় তার সঙ্গে ছিলেন।

পাকস্থলির জটিলতায় গুরুতর অসুস্থ রিজভীকে গত বুধবার রাতে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক সানোয়ার হোসেনের তত্ত্বাবধায়নে তার চিকিৎসা চলছে।

বৃহস্পতিবার রাতে গুলশানে খালেদা জিয়ার সঙ্গে একদল বিশিষ্ট ব্যক্তি ও পেশাজীবীর বৈঠক হয়।

সে সম্পর্কে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা ধারাবাহিক যে কর্মসূচি নিয়েছি, সকল স্তরের ব্যক্তিদের সঙ্গে, রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে, সিভিল সোসাইটির সঙ্গে কথা বলে এই ভয়াবহতা কীভাবে প্রতিরোধ করা যায়, তার ব্যাপারে একটা কার্য্ক্রম গ্রহণ করবেন দেশনেত্রী।’

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ১৫/০৭/২০১৬

Related posts