November 15, 2018

উইরাল বাংলা স্কুলের আয়োজনে বিজয় উৎসব

ফখরুল আলম, লিভারপুল প্রতিনিধি: মহান বিজয়ের ৪৫তম বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে যুক্তরাজ্যস্থ উইরাল বাংলা স্কুল প্রথমবারের মতো দিনব্যাপী চিত্রাংকন ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার মধ্যে দিয়ে বিজয় উৎসব পালন করেছে।

বাংলাদেশের ইতিহাসের পরম গৌরব ও অহঙ্কারের মাস ডিসেম্বর। কত রক্তনদী পেরিয়ে আসা আনন্দ-বেদনায় মিশ্র বিজয়ের গৌরবের বাধঁ ভাঙ্গা আনন্দের সময় এটি। একই সঙ্গে লাখো স্বজন হারানোর শোকে ব্যথাতুর বিহ্বল হওয়ার সময়ও আর অগনিত মানুষের আত্মত্যাগের ফসল এই বিজয়।

প্রবাসে বেড়ে উঠা এ প্রজন্মের  শিশুরাও বাংলাদেশের স্বাধীনতার চেতনায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের কে বিনম্্র শ্রদ্ধা জানিয়েছে রং এবং তুলির ছোয়াঁয়। যারা ১৯৭১ সালে দেশপ্রেমে উজ্জ্বিবিত হয়ে বুকের তাজা রক্তে বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা আর মানচিত্র বিশ^ দরবারে তোলে ধরেছেন মুলত তাদেরকে স্মরণ করছে এইসব ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা।

রোববার উইরাল মাল্টিকালচার সেন্টারে প্রতিষ্টানের শিক্ষক ফখরুল আলম ও নুর আফসারের যৌথ স ালনায় অনুষ্টিত বিজয় মেলার শুভ উদ্ধোধন করেন উইরাল বাংলা স্কুলের প্রধান এবং জি.এস.সি উইরাল শাখার চেয়ারপার্সন কয়ছর মিয়া।
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রেটার সিলেট ডেভেলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইন ইউকে এর সাবেক সেন্ট্রাল চেয়ারপার্সন মনছব আলী জেপি।

সভা শুরুর প্রথমই সম্মিলিত ভাবে জাতিয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্যে দিয়ে ’৭১ এর সকল বীর শহীদদের প্রতি সম্মান জানানো হয়।

মুক্তিযোদ্ধের তাৎপর্য শীর্ষক এক আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন – জি.এস.সি চেষ্টার এন্ড নর্থ ওয়েলস রিজনের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, জি.এস.সি উইরাল শাখার উপদেষ্টা আব্দুল মোমিন, মছব্বির আলী, আনছার মিয়া, জি.এস.সি উইরাল সহ সাধারণ সম্পাদক এনাম আহমেদ, ছিদ্দেক আলী, নোমান আহমেদ, আমীনুর খান, জালাল আহমেদ প্রমুখ।

প্রবাসের শত কর্মব্যস্ততার মধ্যেও বাংলাদেশীর আনন্দে মেতে উঠে উঠেছিলেন বিজয় উৎসবে। দিনব্যাপী ছিল কবিতা আবৃত্তি, স্মৃতিচারণ, আলোচনা সভা,চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা সহ উইরাল বাংলা স্কুলের পরিবেশনায় দেশাত্ববোধক গানের অনুষ্টান।
মুক্তিযুদ্ধের তাৎপর্য শীর্ষক এক আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জি.এস.সি চেষ্টার এন্ড নর্থওয়েলস রিজনের সেক্রেটারী জসিম উদ্দিন, আব্দুল মোমিন, মছব্বির আলী, আনছার মিয়া, এনাম আহমেদ, ছিদ্দেক আলী, আমীনুর খান, জালাল আহমেদ সহ আরো অনেকই।

প্রধান অতিথি উইরাল বাংলা স্কুলের শিক্ষার্থীদের দেশপ্রেম, সাংস্কৃতিক পরিবেশনা এবং ছবি আকাঁ দেখে মুগ্ধ হয়েছেন। প্রতিটি অভিভাবককে প্রবাসে বেড়ে উঠা এ প্রজম্মের শিক্ষার্থীদের বাংলা শিক্ষা এবং দেশীয় সংস্কৃতির আবহে গড়ে তোলার আহব্বান ও জানান প্রধান অতিথি মনছব আলী জেপি ।

আলোচনা সভা শেষে চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহনকারী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিরা।

বিজয়ের গান, কবিতা আর জাতিয় পতাকার লাল সবুজ কে প্রবাসের মাঠিতে ছড়িয়ে দিতে উইরাল বাংলা স্কুলের শিক্ষার্থীরা কপালে লাগিয়েছে পতাকা, কন্ঠে দেশের গান আর হৃদয় জুড়ে শিকরের টান এমনটাই জানান দিয়েছিল বিজয়ের এই উৎসবে অংশ গ্রহনকারী খুদে শিক্ষার্থীরা।

Related posts