September 20, 2018

ইসি’র শক্তি আছে কিন্তু চাইলেও পারবে না—তোফায়েল আহমেদ

ঢাকাঃ  নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সমালোচনা করলে হবে না উল্লেখ করে স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ ড. তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ইসি’র অনেক শক্তি আছে। কিন্তু তা ব্যবহারের নজির নেই। আর তা ইসি চাইলেও পারবে না, যদি সরকার সহায়তা না করে। তাই ইসি যতোই শক্তিশালী হোক, সরকার সহায়তা না করলে ভালো নির্বাচন করতে পারবে না। তাই সরকার না চাইলে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব হবে না। এজন্য শুধু ইসিকে বললে হবে না, সরকারকেও বলতে হবে।

বুধবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ‘চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন: প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন ও স্থানীয় শাসন ব্যবস্থা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। গভর্নেন্স অ্যাডভোকেসি ফোরাম ও মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন এ সভার আয়োজন করে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ইউপি নির্বাচনে এ পর্যন্ত প্রাণনাশের হাফ সেঞ্চুরি হয়েছে। আহত হয়েছেন প্রায় চার হাজার মানুষ। তাই এই নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধই নয়, গুলিবিদ্ধও।

তিনি বলেন, আমরা তো বলনেওয়ালা। যারা দেখনাওয়ালা, শোনাউল্লাহ অর্থা‍ৎ যারা শুনবেন, দেখবেন, তারা কিছু করছেন না। জাতীয় নির্বাচন যেমনই হোক আগে ইউপি নির্বাচন ছিল উৎসবমুখর। কিন্তু এবার তা নেই।

সভায় তোফায়েল আহমেদ নির্বাচনে প্রযুক্তির সহায়তা নেওয়ার প্রতিও জোর দেন। তিনি বলেন, বর্তমান কমিশন প্রযুক্তির সহায়তা নিতে চায় না। কিন্তু ভোটকেন্দ্রে সিসি টিভি থাকলে সহিংসতা অনিয়মকারীকে সহজে চিহ্নিত করা যাবে। এছাড়া ই-মেইল, মোবাইলে অভিযোগ দায়েরের ব্যবস্থা করলে অনেকেই নির্ভয়ে অভিযোগ দেওয়ার সুযোগ পাবেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, এভাবে যদি চলতে থাকে তবে এদেশে রাজনীতি ও গণতন্ত্রের কোনো ভবিষ্য‍ৎ নেই। এখন রাজনীতির সঙ্গে ব্যবসার যোগাযোগ এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে, যে আলাদা করা যায় না।

গভর্নেন্স অ্যাডভোকেসি ফোরামের সমন্বয়ক মহসিন আলীর সঞ্চলনায় সভায় আরও বক্তব্য দেন অধ্যাপক এমএম আকাশ, ব্রতীর চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার শারমীন মুরশিদ, ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপের পরিচালক ড. আব্দুল আলিম, স্টেপসের নির্বাহী পরিচালক রঞ্জন কর্মকার প্রমুখ।আস

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/২৭ এপ্রিল ২০১৬

Related posts