November 16, 2018

ইসলাম অবমাননার প্রতিবাদে ইন্দোনেশিয়ায় দুই লাখ মানুষের বিক্ষোভ

isa
ডেস্ক : ইসলাম অবমাননার অভিযোগে ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তার গভর্নর বাসুকি পুরনামা’র বিচারের দাবি উঠেছে। ব্লাসফেমি আইনে তার বিচারের দাবিতে শুক্রবার দেশটির রাজপথে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন অন্তত দুই লাখ মুসল্লি। এ সময় বিক্ষোভকারীরা গভর্নরকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানান।

শুক্রবারের পূর্বঘোষিত এ বিক্ষোভের কথা মাথায় রেখে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে ইন্দোনেশিয়ার নিরাপত্তা বাহিনী। যে কোনও ধরনের সহিংসতা ঠেকাতে ২০ হাজারের বেশি নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করা হয়। কঠোর নজরদারি এবং নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হয় জাকার্তার রাজপথ। বিক্ষোভকারীদের দাবি, জাকার্তার গভর্নর পবিত্র কোরআনের অবমাননা করেছেন। তবে যার বিরুদ্ধে এমন ব্যাপক বিক্ষোভ সেই পুরনামা’র দাবি, তিনি বিরোধীদের ষড়যন্ত্রের শিকারে পরিণত হয়েছেন।

২ ডিসেম্বর ২০১০৬ শুক্রবার ইসলামি রীতি অনুযায়ী পায়জামা-পাঞ্জাবি ও টুপি পরে প্রতিবাদ বিক্ষোভে অংশ নেন মুসল্লিরা। জাকার্তার ন্যাশনাল মনুমেন্ট পার্কে প্রায় দুই লাখ মুসল্লি সমবেত হয়ে গর্ভনরের বিরুদ্ধে নানা শ্লোগান দেন। পাশাপাশি ইসলামি সংগীত এবং জাতীয় সংগীত গাইতে থাকেন।

বিক্ষোভাকারীদের দাবি, আইন সবার জন্য সমান। কাজেই গভর্নরকে অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে। বিক্ষোভে অংশ নেওয়া ব্যক্তিদের একজন ২৬ বছরের যুবক রিকি সুবাগিয়া। তিনি বলেন, ‘আমরা ন্যায়বিচার চাই। আর এজন্য আহককে আইনের আওতায় আনা উচিৎ।’

বিক্ষোভ চলাকালেই সেখানে হাজির হন আলোচিত ওই গভর্নরের মিত্র হিসেবে পরিচিত ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো জোকোইয়ি উইদোদো। তিনি বিক্ষোভকারীদের শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভের সমাপ্তি টানার আহ্বান জানান।

এর আগে গত ৪ নভেম্বর গভর্নরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে প্রায় এক লাখ মানুষ জাকার্তায় বিক্ষোভ করেন। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, জাকার্তার গভর্নরের বক্তব্য ইসলাম অবমাননার পর্যায়ে পড়ে কিনা তা নিয়ে তদন্ত চলছে। ইসলাম অবমাননা করে থাকলে দেশটির আইনে গভর্নরের পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হবে।

জাকার্তার গভর্নর বাসুকি পুরনামা’র আরেক নাম আহক। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিওতে তাকে পবিত্র কোরআনের সমালোচনা করতে দেখা যায়। এরপর থেকেই তার বিচার দাবিতে ফুঁসে উঠে পুরো ইন্দোনেশিয়া। সূত্র: দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট।

Related posts