November 18, 2018

ইসলামী সম্মেলনের সফর বাতিল করলেন প্রধানমন্ত্রী?

ঢাকাঃ  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার ইস্তাম্বুল সফর বাতিল করেছেন। মুসলিম রাষ্ট্রের জোট ওআইসি’র ১৩তম শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নিতে তিন দিনের সফরে আজ তার তুরস্কের ইস্তাম্বুলে যাওয়ার কথা ছিল। সে মতে প্রস্তুতিও ছিল। কিন্তু চূড়ান্ত মুহূর্তে সরকার প্রধানের সফরে না যাওয়ার সিদ্ধান্তে ঢাকা ও ইস্তাম্বুলে ওই সফরের সব প্রস্তুতি বাতিল করা হয়। তুরস্ক থেকে ফিরিয়ে আনা হয় সফরের এডভান্স টিম বা অগ্রবর্তী দলের সদস্যদের। গতকালই তারা ঢাকায় ফিরেছেন। সরকারের দায়িত্বশীল একাধিক সূত্র সফর বাতিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। সূত্র মতে, ভিসা থেকে শুরু করে হোটেল বুকিং এবং অন্যান্য কর্মসূচি ঠিক হয়েছিল। আঙ্কারাস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসও প্রধানমন্ত্রীকে বরণে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছিলো। কি কারণে এই সফর বাতিল করা হলো তা জানা সম্ভব হয়নি। সরকারের তরফে এ সম্পর্কে কিছুই বলা হয়নি।

এদিকে ৫৭ মুসলিম রাষ্ট্রের জোট অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন ওআইসি’র এবারের আয়োজনকে খুবই তাৎপর্যপূর্ণ করা হচ্ছে। আয়োজকদের তরফে সদস্য দেশগুলোর শীর্ষ পর্যায়ের প্রতিনিধিত্ব আশা করা হয়েছে। জানানো হয়েছে, এ সম্মেলনে মুসলিম দেশগুলোর পরস্পরিক এবং কার্যকর সহযোগিতা বাড়ানোর বিষয়ে নেতারা আলোচনা করবেন। সেখানে ওআইসির ভূমিকা নিয়েও কথা হবে। শান্তি ও নিরাপত্তা, সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রপন্থা মোকাবিলা, মানবাধিকার, উন্নয়ন, দারিদ্রতা হ্রাস, নারী ও শিশুসহ মুসলিম পরিবারগুলোর সুরক্ষাসহ মুসলিম বিশ্বের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন বিষয় সংযোজনের মধ্য দিয়ে সংগঠনের ২০১৬-২৫’ প্ল্যান অব অ্যাকশনে যে সংশোধনী আনা হয়েছে ইস্তাম্বুল সম্মেলনে তা অনুমোদন হওয়ার কথা। ‘শান্তি ও ন্যায় বিচারের জন্য ঐক্য ও সংহতি’ স্লোগানে গত ১০ই এপ্রিল থেকে সম্মেলনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। কর্মকর্তাদের আলোচনা শেষ হয়েছে। এখন চলছে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক। পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ওই বৈঠকে অংশ নিয়েছেন। কাল থেকে শুরু হওয়া রাষ্ট্র বা সরকার প্রধানদের শীর্ষ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর অনুপস্থিতিতে মন্ত্রী মাহমুদ আলী বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন বলে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

উৎসঃ মানব জমিন
দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/১২ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts