September 20, 2018

ইলিশঃ জেলেদের হাসি থাকলেও এ কিসের ভয়!

সাইয়েদ কাজল বরিশাল থেকেঃ সরকারের আইন মেনে চলায় দেশের দখিন উপকুলে ইলিশের সরগরম হয়ে উঠেছে মৎস ঘাট গুলো । জেলেদের মুখে হাসি ফুটেছে। ২২ দিনের নিশেধ মেনে গত বৃহস্পতিবার রাত থেকে জেলেরা সাগরে মাছ ধরতে নেমেছে । শুক্রবার থেকে দখিনের আড়ত গুলোতে বড় মাঝারী সহ বিভিন্ন সাইজের ইলিশের দেখা মিলেছে । আড়তের কর্মচারীরা ব্যস্ত হয়ে পরেছে মাছ সংরক্ষ‹নে । বরিশাল াবভাগীয় মৎস অফিসের সহকারী পরিচালক আজিজুল হক জানান সরকারে আইন মেনে চলেছে দেশের দখিনের ৯৯ ভাগ জেলেরা । ফলে গত দু বছরের চেয়ে গেলো ২২দিনে মা ইলিশ রক্ষার্থে সরকারে নিশেধে অনেকাংশে সফল হয়েছে । আজিজুলের মতে এবার প্রায় শতকরা ৭৯ ভাগ মা ইলিশ রক্ষা পেয়েছে।

আজ শুক্রবার বরিশালের পোর্টরোড¯হ বিভাগীয় মৎস আড়তে গিয়ে দেখা গেছে ব্যাপক মাছের সমরহ । তবে জেলেরা জানান বৃহস্পতিবার থেকে মাছ ধরতে নামলে ও বৈরী হাওয়ার কারনে ও নিম্ন চাপ সৃষ্টি হওয়া সাগরে না যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর । ফলে মাছ ধরতে যাওয়া হবে না আবহাওয়া ভালো না হওয়া পর্যন্ত। এ দিকে মাছ ধরা শুরুর সাথে সাথে জলদস্যুদেরও হানা দেয়া শুরু হয়ে গেছে । ফলে জেলেরা আতংকিত ।

এ বছর ২২ দিনের ম্ াইলিশ রক্ষার্থে সরকারের জারিকৃত নিশেধে র সময়ে পরিচালিত অভিযানকালে জেলে আটক ও জমিনা আদায়সহ ইলিশ ও অবৈধ আরেন্ট জালের পরিমান ছিলে কম। গত বছর নিশেধের সময় ছিলো ১৫ দিন আর এবছর ছিলো ২২ দিন । ফলে মা ইলিশ ডিম দিতে পেরেছে । গত বছর মা ইলিশ রক্ষার্থে ১৫ দিনের নিশেধে ১৩৮৭ টি অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময়ে ৮৪৮ জেলেকে আটক করা হয়েছিলো এবং ৮৮০ টি মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ৫৩১ জেলে কে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড ও বাকী ৩১৭ জেলের কাছ থেকে ১৬ লাখ ২৫ হাজার ৫০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

৯ কোটি ৯৩ লাখ মূল্যের ৫০দশমিক ২৯৪০৭ মিটার লাখ অবৈধ জাল আটক করা হয়। আর এ বছর গত ২২ দিনে জেলেদের সাগর এবং নদীতে বিচারন ছিলো খ্বু কম ।গত ২২ দিনে বরিশাল বিভাগে মা ইলিশ রক্ষার্থে অভিযান পরিচালিত হয় ১৮৬০ টি। এর মধ্যে মোবাইকোট পচিালিত হয় ৯৫৪ টি ।এতে ২৭৩ জেলে কে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান করা হয় ।অভিযানে র সময়ে ৩ হাজার ৯৭৪ কেজি ইলিশ ও ২৯ লাখ ৭৭ হাজার ৯৪০ মিটার অবৈধ জাল আটক করা হয়। উদ্বার হওয়া জালের মূল্য প্রায় ৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা।

মৎস অধিদপ্তর সুএে জানা গেছে কোষ্টগার্ড , প্রশাসন ইউপি চেয়ারম্যান ,উপজেআ প্রশাসনের যৌথ অভিযানে এবং তাদের সহযোগিতায় এবার এত সফলতা পাওয়া গেছে । জেলেরা ও সরকারের নিশেধ মেনে চলেছে । ঐ স্এূ জানায় দেশের ইলিশ উৎপাদনের অন্যতম স্থান হিসেবে বরিশাল বিভাগের ৯০ টি নদনদীর ৩ লাখ ২০ হাজার ২ শ ৫৪ হেক্টর জল এলাকায় মৎস শিকারে নিয়োজিত রয়েছে ৩ লাখ ১ হাজার ৬ শ ৭৯ জন। এদের মধ্যে ২ লাখ ২৭ হাজার ৯ শ ৪৩ জন কে পূর্ন বাসনের জন্য জাল বিতরন করা হয়েছে ।

Related posts