November 16, 2018

ইরানের কাছে আমেরিকার নতি স্বীকার, মুক্তিপণও দিল ওবামা সরকার!‌

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ বন্দী মার্কিন নাগরিকদের মুক্তির জন্য ইরান সরকারকে মুক্তিপণ দিয়েছে ওবামা সরকার!‌ তথ্যটি ফাঁস করেছে মার্কিন দৈনিক ‘‌ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল’‌।

ইরানের শাহ মোহম্মদ রেজা পাহলাভির আমলে আমেরিকা থেকে অস্ত্র কিনতে চুক্তি করে তেহরান। সেই বাবদ অগ্রিমও দেয়। কিন্তু ১৯৭৯ সালের বিপ্লবের পর শাহ সরকারের পতন ঘটে। বাতিল হয়ে যায় চুক্তি। দীর্ঘ আলোচনার পর তেহরানকে দফায় দফায় মোট ১৭০ কোটি ডলার ফেরত দিতে হবে বলে সিদ্ধান্তে আসে দু’‌পক্ষ। এবছর জানুয়ারিতেই সেই টাকার প্রথম কিস্তি মেটাবার কথা ছিল। সেই মতো ১৭ জানুয়ারি কার্গো বিমানে করে ইউরো, সুইস ফ্রাঁ ও অন্য বিদেশি মুদ্রা মিলিয়ে মোট ৪০ কোটি মার্কিন ডলার তেহরানে পৌঁছে দেয় আমেরিকা।

কিন্তু গোপন সূত্রে জানা গেছে, বিমানে করে শুধুমাত্র কিস্তির টাকাই পাঠানো হয়নি। তার মধ্যে তেহরানে বন্দী চার মার্কিন নাগরিকের মুক্তিপণের টাকাও ছিল। হোয়াইট হাউস কর্মকর্তারা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাদের দাবি, ৩৫ বছরেরও বেশি পুরনো ওই অস্ত্র চুক্তির সঙ্গে চার বন্দীর কোনো যোগ নেই।

তবে তাদের যুক্তি ধোপে টেকেনি। বরং বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা সরকারের এই পদক্ষেপ নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। সময় নষ্ট না করে মাঠে নেমে পড়েছেন রিপাবলিকানরা। দলের ইলিনয়ের সেনেট মার্ক কার্কের দাবি, ৪ মার্কিন নাগরিক দেশে ফিরেছেন ভালো কথা। কিন্তু আমেরিকা নতি স্বীকার করায় ইরান এবার যা ইচ্ছে তাই করবে।

Related posts