November 17, 2018

ইরাকের সাথে দ্বন্দ্ব দূর করতে চায় তুরুস্ক!

তুর্কি প্রধানমন্ত্রী আহমেত দাভুতোগলু

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ ইসলামিক স্টেটের সাথে যুদ্ধের প্রস্তুতিতে ইরাকি সৈন্যদের প্রশিক্ষণ দিতে ইরাকের উত্তরদিকে তুর্কি সেনা মোতায়েন করা নিয়ে দুই দেশের মধ্যে যে কোলাহলের সৃষ্টি হয়েছে তা মেটানোর জন্য তুর্কি প্রধানমন্ত্রী আহমেত দাভুতোগলু খুব শিগগিরি বাগদাদ সফরে যাবেন।

ইরাকের উত্তরদিকে সেনা মোতায়েনের কারণ হিসাবে তুর্কি বলেছিল সেখানে ইরাকি সৈন্যদের প্রশিক্ষিত করার জন্য এই সেনা মোতায়েন করা হয়েছে কিন্তু এর জবাবে বাগদাদ থেকে তীব্র প্রতিবাদ করা হয় এবং বলা হয় তাদের প্রশিক্ষিত করার জন্য কারো প্রয়োজন নেই।

ইরাক সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ করে বলা হয়, তুর্কি এমন কোনো উচ্চতর সেনাবাহিনী উদ্ভাবন করেনি যে তারা ইরাককে প্রশিক্ষণ দেবে, আর যদি এই সেনা দ্রুত প্রত্যাহার না করা হয় তাহলে জাতিসংঘের কাছে নালিশ দেয়ার কথাও তারা বলেন।

দাভুতোগলু বলেছেন, ইরাকে তুর্কি সেনা মোতায়েনের করা হয়েছে আইএসের তরফ থেকে সাম্ভাব্য সন্ত্রাসী হামলা প্রতিরোধ করার জন্য। এটাকে যদি কেউ ভুলভাবে ব্যাখ্যা করে তাহলে সেটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত প্ররোচনার জন্য করেছে। তিনি আরো বলেন, উত্তর ইরাকের সেনা ক্যাম্পে ইতিমধ্যে প্রায় ২ হাজার সেনা প্রশিক্ষণ নিয়েছে।

তুর্কি আপাতত নতুন করে সেনা মোতায়েন বন্ধ রাখলেও যে সমস্ত সেনা সদস্য ইতিমধ্যে সেখানে রয়েছেন তাদেরকে ফিরিয়ে নিতে রাজি না।

এদিকে ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে তুর্কিকে সৈন্য প্রত্যাহারের জন্য ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছিলেন এবং বলেছিলেন এই সময়সীমা পার হলে তারা ব্যতিক্রম ব্যবস্থা নেবেন। কারণ তুর্কি ইরাকি সরকারের অনুমতি ব্যতিত সেখানে প্রবেশ করেছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts