November 17, 2018

ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া ‘শত্রু’ই থাকবে

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) তো নয় যেন এক টুকরো জাতিসংঘ! পুরো ক্রিকেট বিশ্বের নামীদামি খেলোয়াড় সব জড়ো হন এখানে। বিভিন্ন দলের জার্সি গায়ে চাপিয়ে কিছুদিনের জন্য হরিহর আত্মা হয়ে ওঠেন সবাই। হরভজন-সাইমন্ডসও হয়ে যান বন্ধু। আইপিএলই তো পারে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড শত বছর পুরোনো ‘শত্রুতা’কে ভুলিয়ে দিতে!
সে আশায় গুড়ে বালি। ইংল্যান্ড অধিনায়ক এউইন মরগান জানিয়ে দিয়েছেন, আইপিএলে খেলুন আর যাই করুন, ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া সব সময় ‘শত্রু’ই থাকবে। এত বছরের ঐতিহ্য একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ ভুলিয়ে দিতে পারবে না, ‘১০০ বছরের বেশি সময় ধরে এ প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলছে। সঠিকভাবে বললে, খেলাটির জন্ম থেকেই। সুতরাং, লড়াইয়ের ঝাঁজ বাড়া বা কমার প্রসঙ্গই এখানে আসে না।’
এবারের আইপিএলে মরগান খেলছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদে। এ দলের নাম নতুন করে বলার অবশ্য কিছু নেই। মুস্তাফিজুর রহমানের সুবাদে এই দলকে এখন সবাই চেনেন। এই দলে মুস্তাফিজ-মরগানের অধিনায়কত্ব কিন্তু একজন অস্ট্রেলিয়ানের কাঁধেই। ডেভিড ওয়ার্নারের নেতৃত্বে বেশ ভালোই করছে হায়দরাবাদ। শুধু অধিনায়ক নন, হায়দরাবাদ দলে আরও দুই অস্ট্রেলিয়ান সতীর্থ আছে মরগানের। আইপিএল উপলক্ষে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কও গড়ে উঠেছে।

তবে মরগানের ধারণা, এই বন্ধুত্বও অ্যাশেজে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ কমাতে পারবে না, ‘দলগুলোর অবস্থা কী, কিংবা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কেমন করছে, তার সঙ্গে এর (অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড দ্বৈরথ) সম্পর্ক নেই। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে যেকোনো ম্যাচেই—তা অ্যাশেজ কিংবা বিশ্বকাপে হোক, উত্তেজনার পারদ সব সময় তুঙ্গেই থাকে।’ সূত্র : ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

Related posts