November 13, 2018

আ.লীগের মনোনয়ন ফরম কিনলেন জামায়াত নেতাও

515

সাজ সাজ রব এখন সাতক্ষীরা পৌর এলাকায়। আসন্ন পৌর নির্বাচন ঘিরে ঘুম নেই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন-প্রত্যাশী নেতাদের। দলের মনোনয়ন পেতে মরিয়া অধিকাংশ নেতাকর্মী। তাদের কেউ কেউ গত দুই মাস ধরে আগাম নির্বাচনী প্রচার চালিয়ে আসছেন।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ৩০ ডিসেম্বর এখানে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ইতিমধ্যে সাতক্ষীরা পৌরসভার মেয়র পদে পাঁচজন, কাউন্সিলর পদে ৯টি ওয়ার্ডে অন্তত ২০ জন দলীয় মনোনয়নপত্র কিনেছেন। জামায়াত নেতা নাশকতা মামলায় সদ্য জামিনে মুক্তি পাওয়া বর্তমান ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. শহিদুল ইসলামও এতে রয়েছেন।

মেয়র পদে আবেদনপত্র কিনেছেন মো. নজরুল ইসলাম, আবু সাঈদ, শাহাদত হোসেন, ছাইফুল করিম সাবু ও আশরাফুল হক।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম শওকাত হোসেন সাংবাদিকদের জানান, মেয়র পদে দলীয় প্রার্থীদের আবেদন যাচাই করে সেগুলো প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে পাঠানো হবে। কাউন্সিলরদের ব্যাপারে তিনি জানান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সভা করে ঠিক করবেন দলীয় কাউন্সিলর প্রার্থী।

অন্যদিকে কাউন্সিলর পদে দলীয় মনোনয়ন পেতে প্রতি ওয়ার্ডে দুই থেকে তিনজন প্রার্থী হতে আগ্রহী হওয়ায় বিপাকে পড়েছে দলের জেলা পর্যায়ের নীতি নির্ধারকরা। এর মধ্যে আবার দু-একটি ওয়ার্ডের জামায়াত-বিএনপি ও নাশকতা মামলার আসামিরা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন।

দলীয় সূত্র জানায়, ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর নাশকতা মামলায় সদ্য জামিনে মুক্তি পাওয়া জামায়াত নেতা মো. শহিদুল ইসলাম আওয়ামী লীগের প্রার্থী হওয়ার জন্য মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। অভিযোগ উঠেছে, জয় নিশ্চিত করতে তিনি মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে দৌড়ঝাঁপ করছেন নেতাদের বাড়িতে।

এ ছাড়া আওয়ামী লীগে নতুন যোগ দেয়া আরো কয়েকজন একইভাবে মনোনয়ন পেতে মরিয়া বলে জানা গেছে।

আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানান, দলীয় মনোনয়ন কিনলেই দলীয় প্রার্থী হয়ে যায় না। টাকা নিয়ে দৌড়ঝাঁপের বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নেতা জানান, টাকা দিয়ে আওয়ামী লীগের মননোয়ন পাওয়া যাবে না।

এ ব্যাপারে কাউন্সিলর শহীদুল ইসলাম বলেন, “আমি জামায়াত করি না।” গ্রেপ্তারের বিষয়ে তিনি বলেন, “আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে।”ঢাকাটাইম

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts