September 19, 2018

ঈশ্বর ও আল্লাহর নামে শপথ নিলেন মমতা!

দিল্লিঃ   পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয়বারের মত শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রেড রোডের খোলা মঞ্চে রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠি যখন মমতাকে শপথবাক্য পাঠ করাচ্ছেন, তখন চারিদিক নিশ্চুপ। খাঁটি বাংলায় আল্লাহ ও ঈশ্বরের নামে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন তৃণমূল নেত্রী মমতা।

ঠিক সোয়া ১২টার দিকে কালীঘাটের বাড়ি থেকে বের হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে পৌঁছতেই তাকে ঘিরে উৎসাহে ফেটে পড়েন আগতরা।

ভাষার ভিত্তিতে পাঁচজন করে মন্ত্রীদের একসঙ্গে শপথ পাঠ করানো হয়। বাংলা, ইংরেজি, উর্দু এবং হিন্দি ভাষায় শপথ পাঠ করানোর ব্যবস্থা ছিল। প্রথমে শপথ নেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর শপথ নেন পার্থ চ্যাটার্জি, অমিত মিত্র, শোভনদেব চ্যাটার্জি, সুব্রত মুখার্জি, অবনীমোহন জোয়ারদার।

এভাবে ফিরহাদ হাকিম, গৌতম দেব, অরূপ বিশ্বাস, জাভেদ খান, শোভন চ্যাটার্জি; শুভেন্দু অধিকারী, আব্দুর রেজ্জাক মোল্লা, বিনয়কৃষ্ণ বর্মণ, সাধন পান্ডে, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক; পূর্ণেন্দু বসু, রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, শান্তিরাম মাহাত, অরূপ রায়, ব্রাত্য বসু; চন্দ্রনাথ সিনহা, চূড়ামণি মাহাত, মলয় ঘটক, রাজীব ব্যানার্জি, সৌমেন মহাপাত্র; আশিস ব্যানার্জি, তপন দাশগুপ্ত, জেমস কুজুর।

স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন শশী পাঁজা, স্বপন দেবনাথ, সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী, মন্টুরাম পাখিরা, অসীমা পাত্র।

এরপর রাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে শপথ পাঠ করলেন গিয়াসুদ্দিন মোল্লা, বাচ্চু হাঁসদা, গুলাম রব্বানি, সন্ধ্যারানি টুডু। প্রথমবারের জন্য মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন লক্ষ্মীরতন শুক্লা, শ্যামল সাঁতরা, ইন্দ্রনীল সেন, জাকির হোসেন। তারাও রাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন।

শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে অতিথির আসনে ছিলেন ভূটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং টোবগে ও বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার, লালু প্রসাদ যাদব, ফারুখ আব্দুল্লাও উপস্থিত ছিলেন শপথ অনুষ্ঠানে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার রাজ্যের নতুন মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণের সাক্ষী হতে রেড রোডে হাজির ছিল টলি ব্রিগেড। শপথের অনেক আগে থেকেই, একেবারে যেন তারকার মেলা বসে যায়। হাজির ছিলেন টলিউড তারকা প্রসেনজিত, ঋতুপর্ণার মতো সেলিব্রিটিরাও। হাজির হন সৌরভ গাঙ্গুলিও।

অনুষ্ঠানে প্রসেনজিত, ঋতুপর্ণার পাশপাশি হাজির ছিলেন জুন মালিয়া, সোহম, মাধবী মুখার্জি, রুদ্রনীল ঘোষ, দীপঙ্কর, পায়েল সরকার, নিসপাল সিং রানে, রাজ চক্রবর্তীসহ একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রী এবং পরিচালক, প্রযোজক। ছিলেন অভিনেতা সংসদ সদস্য তাপস পাল, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, মুনমুন সেন এবং অভিনেতা দেব।

তারকার হাটে দেখা যায় কৌশিক গাঙ্গুলি, রাজ চক্রবর্তী, ঊষা উত্থুপ, অরিন্দম শীলকেও। শুধু টলি নয়, টেলি স্টারদেরও ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

এসবের পাশপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির হন একাধিক শিল্পপতিও। সঞ্জীব গোয়েঙ্কা, সঞ্জয় বুধিয়া এবং এসেল গ্রুপের চেয়ারম্যান ডক্টর সুভাষ চন্দ্র।

এদিকে দ্বিতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেয়ার পরপরই নবান্নে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তাকে কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে গার্ড অফ অনার দেয়া হয়। এরই ফাঁকে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে দেখাও করেন তিনি।

Related posts